Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঈদ-উল-আজহায় আসছে যেসব সিনেমা

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা মিয়া আলাউদ্দিন জানান, ঈদে সারাদেশে বন্ধ থাকা শতাধিক প্রেক্ষাগৃহ চালু হবে

আপডেট : ৩১ মে ২০২৩, ১২:২২ পিএম

বছর ঘুরে আবারও দুয়ারে কড়া নাড়ছে পবিত্র ঈদ-উল-আজহা। ঈদের আনন্দের সঙ্গে জড়িয়ে আছে সিনেমাও। প্রতিবছর ঈদকে ঘিরে প্রেক্ষাগৃহে নতুন নতুন সিনেমা মুক্তি পায়। সর্বশেষ ঈদ-উল-ফিতরেও দেশব্যাপী ৬টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে।

আসন্ন ঈদ-উল-আজহায়ও বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র মুক্তি পাবে বলে পূর্বাভাস রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ঈদ-উল-আজহায় মুক্তি পাওয়া সিনেমার সংখ্যা ঈদ-উল-ফিতরকেও ছাড়িয়ে যাবে। চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণের করা এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ঈদ-উল-আজহায় ১১টি সিনেমা মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

ঈদ-উল-আজহায় মুক্তির জন্য এখন পর্যন্ত ৩টি সিনেমার নাম নিবন্ধিত হয়েছে। সেগুলো হলো- “জিম্মি”, “ইব্রাহীম” ও “গ্যাংস্টার”। এছাড়া, আরও ৮টি সিনেমা মুক্তি পাবে বলে জোর গুঞ্জন। এগুলো হলো- “প্রিয়তমা”, “সুড়ঙ্গ”, “অন্তর্জাল”, “লাল শাড়ি”, “প্রহেলিকা”, “ক্যাসিনো”, “কাগজের বউ” ও “রিভেঞ্জ”।

“ক্যাসিনো” সিনেমার নির্মাতা সৈকত নাসির প্রথম আলোকে বলেন, “আমাদের ছবি অবশ্যই ঈদে আসতে হবে। প্রযোজকের আগ্রহেই আমাদের এ সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। তবে এটাও ঠিক, দেশে যে পরিমাণ সিনেমা হল আছে, তাতে এতগুলো ছবির মুক্তি মোটেও কাম্য নয়।

ঈদে এতগুলো সিনেমা মুক্তির প্রসঙ্গে “অন্তর্জাল” ছবির পরিচালক দীপংকর দীপন বলেন, “বাংলাদেশের মতো এত বড় একটা দেশে কার্যকর প্রেক্ষাগৃহ রয়েছে ৭০-৮০টি। তিন-চারটির বেশি ছবি মুক্তি না হওয়াই ভালো। বেশি হওয়াতে সব সিনেমারই ক্ষতি হবে।”

“প্রহেলিকা সিনেমার পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী বলেন, “‘প্রহেলিকা' ঈদেই আসবে।” অন্যদিকে, এ সিনেমার অভিনেতা মাহফুজ আহমেদ বলেন, “এত কষ্ট, এত পরিশ্রম করে একজন অভিনয়শিল্পী অভিনয় করেন, দর্শকের কাছে ছবিটা ভালোভাবে না পৌঁছালে অভিনয়শিল্পী হিসেবে খুব কষ্টের। তবে এটা বলতে চাই, ‘প্রহেলিকা' অসাধারণ গল্পের ছবি, একেবারেই মৌলিক গল্প, দর্শক একবার দেখলেই ছবিটির প্রতি তাদের ভালো লাগা তৈরি হবে।”

ছোটপর্দা এবং ওটিটি মাতিয়ে “সুড়ঙ্গ সিনেমার মাধ্যমে রুপালি পর্দায় পা রাখছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশো। আলফা আই স্টুডিওজ ও চরকি প্রযোজিত ছবিটির পরিচালক রায়হান রাফি বলেন, “মহরতের সময়ই বলেছিলাম, ঈদে আসব, সেভাবেই আমরা তৈরি হয়ে এসেছি। ঈদ তো সবার জন্য ওপেন। তাই যারা সিনেমা নিয়ে কনফিডেন্ট, তাদেরই আসা উচিত।”

এ নির্মাতা আরও বলেন, “আমার ছবির সঙ্গে ২০টি মুক্তি পেলেও সমস্যা দেখি না। তবে এটাও ঠিক, একসঙ্গে এত ছবি মুক্তিতে ঝুঁকিও আছে। আর মানুষ বরাবরই ভালো ছবিকে গ্রহণ করবে, ‘পোড়ামন ২' ও ‘পরাণ' ছবির ক্ষেত্রেও তেমনটাই দেখেছি।”

বিগত অনেক বছর ধরে ঢালিউডে ঈদ মানেই শাকিব খানের চলচ্চিত্র। আসন্ন ঈদ-উল-আজহার ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম হচ্ছে না, মুক্তি পাবে তার অভিনীত “প্রিয়তমা”। সিনেমাটির নির্মাতা হিমেল আশরাফ বলেন, “প্রিয়তমা'র ফার্স্টলুক প্রকাশের পর সব জায়গা থেকে যে সাড়া পেয়েছি এবং প্রতিদিনই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যেভাবে সবার আগ্রহ দেখছি, বিশেষ করে হল মালিকেরাও যেভাবে নিয়মিত খোঁজখবর নিচ্ছেন, তাতে আমি মনে করি না প্রেক্ষাগৃহ নিয়ে ভাবতে হবে। সংখ্যায় কত হল পাবে, এটা প্রযোজকের সিদ্ধান্ত। আমি চাই, যেখানে প্রদর্শনের ব্যবস্থা ও পরিবেশ ভালো, সেখানেই ‘প্রিয়তমা' চলবে।”

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা মিয়া আলাউদ্দিন জানান, এবারও ঈদে সারাদেশে বন্ধ থাকা শতাধিক প্রেক্ষাগৃহ চালু হবে। কিন্তু ঈদে একসঙ্গে এত চলচ্চিত্র মুক্তি দেওয়াকে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত উল্লেখ করে চলচ্চিত্রের প্রবীণ ব্যবসায়ী বলেন, “আমি যখন চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, তখন ১,৪০০ সিনেমা হল ছিল। সর্বোচ্চ সিনেমা মুক্তি পেয়েছিল ১৩টি। সুপার ফ্লপ ছবিটাও ৬০-৭০টি হলে রিলিজ হয়েছিল। ওই সময় তো এখন আর নেই। এ সময়ে সর্বোচ্চ তিন-চারটি ছবি মুক্তি দেওয়াই ভালো।”

About

Popular Links