Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শিল্পী সমিতির সভাপতি পদে লড়বেন ডিপজল, ঠিক করেছেন সম্পাদক প্রার্থীও

ডিপজল বলেন, আমি সাধারণ শিল্পীদের জন্য কী করি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সাধারণ শিল্পীরা সবাই জানে। আমি নির্বাচনে ভোট পেলে পাবো, না পেলে না পাবো। তবে আমি অবশ্যই নির্বাচন করবো

আপডেট : ১০ মে ২০২৩, ০৯:৫০ পিএম

আগামী শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে লড়াই করার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকাই শোবিজের খলনায়ক মনোয়ার হোসেন ডিপজল। বিষয়টি নিয়ে সবকিছু গুছিয়ে নিচ্ছেন তিনি। ইতোমধ্যে তার সঙ্গে সাধারণ সম্পাদক কে থাকবেন তাও ঠিক করেছেন।

ডিপজল বলেন, “সাধারণ সম্পাদক পদে কাকে রাখব ঠিক করে ফেলেছি। এত আগে নামটা জানাতে চাই না। তবে আমি আগামী নির্বাচনের জন্য সব কিছু গুছিয়ে নামছি।”

এই খল অভিনেতা বলেন, আমি সাধারণ শিল্পীদের জন্য কী করি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সাধারণ শিল্পীরা সবাই জানে। আমি নির্বাচনে ভোট পেলে পাবো, না পেলে না পাবো। তবে আমি অবশ্যই সভাপতি পদে নির্বাচন করবো।

বর্তমান কমিটির ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, “শিল্পী সমিতি নির্বাচিত সদস্যদের বাদ দেওয়া নিয়ে যা ঘটেছে তা কেলেঙ্কারীর মতো। বিশেষ করে নির্বাচিত সহসভাপতি চিত্রনায়ক রুবেল ও কার্যনির্বাহী সদস্য চিত্রনায়িকা সুচরিতাকে নোটিশ দিয়ে সমিতি থেকে সরানোর বিষয়টি মোটেও উচিত হয়নি।”

বর্তমান কমিটির সমালোচনা করে ডিপজল বলেন, “তারা হিন্দি ছবি আমদানির পক্ষে ১০% কমিশনের দিকে চলে গেছে। আর কোনো কাজে দেখা যায় না। প্রতিবার মিলনমেলার মাধ্যমে ইফতার পার্টির আয়োজন করা হয়, সেটাও তারা করল না। প্রতিবছর যেহেতু হয়, এবারও করা উচিত ছিল।”

শারীরিক অসসুস্থতা কাটিয়ে ওঠে পুনরায় সিনেমা হলে ফিরবেন বলেও আশাবাদী ডিপজল। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ডিপজলের চারটি ছবি। আগামী ঈদে যেকোনো একটি ছবি মুক্তি দিতে চান তিনি।

প্রসঙ্গত, শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে সারাদেশের মানুষের বেশ আগ্রহ জন্মেছে। বিশেষ করে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ আক্তার ও বিদায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের প্রকাশ্য দ্বন্দ্বে জড়ানো ও আদালতের দ্বারস্থ হওয়াকে নিয়ে। বর্তমান কমিটির সভাপতি হিসেবে আছেন ইলয়াস কাঞ্চন। কমিটিতে আরও আছেন রিয়াজ, ফেরদৌস, সাইমন, নিরব, জেসমিন, আরমানসহ অনেকে।

About

Popular Links