Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তমাকে নিয়ে জন্মভূমিতে নিশো, প্রতিশ্রুতি দিলেন হল নির্মাণের

নিশো বলেন, ভূঞাপুরে বর্তমানে একটিও সিনেমা হল নেই। তারপরও আমার ভক্তরা অস্থায়ী সিনেমা হল বানিয়ে সিনেমা দেখার সুযোগ করে দিয়েছে। আগে কোথাও শুনিনি যে এইভাবে অস্থায়ী সিনেমা হল তৈরি করা হয়েছে

আপডেট : ১২ জুলাই ২০২৩, ১০:৪৫ পিএম

দেশ ও দেশের বাইরে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ছোটপর্দা ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশোর প্রথম সিনেমা “সুড়ঙ্গ”। দেশের গণ্ডি পেরানো সিনেমাটি ঈদেই মুক্তি পেয়েছে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে। তবে সেখানে স্থায়ী কোনো সিনেমা হল না থাকায় অস্থায়ীভাবে বানানো হলে মুক্তি দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১১ জুলাই) রাতে ভূঞাপুরে ভক্ত ও অনুরাগীদের উন্মাদনা উপভোগ করেন আফরান নিশো। নিজ জন্মভূমিতে এ সময় সংবর্ধনাও দেওয়া হয় এই অভিনেতাকে। একইসঙ্গে উন্মুক্ত মাঠে দেখানোর ব্যবস্থা করা হয় সিনেমাটি।

ভূঞাপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- “সুড়ঙ্গ”র নায়িকা তমা মির্জা, পরিচালক রায়হান রাফীসহ টিমের অন্য সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে জন্মস্থানের প্রতি নিজের প্রবল আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন নিশো। প্রয়াত বাবাকে স্মরণ করে স্মৃতিচারণ করেন। 

তিনি জানান, সুড়ঙ্গ সিনেমায় তিনি মাসুদ নামের যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সেই চরিত্রটির আদল ছিল তার বাবার আদলে।

নিশো বলেন, “ভূঞাপুর আমার জন্মস্থান। মাঝে মাঝে গভীর রাতে বাবার কথা মনে হলেই কাউকে না জানিয়ে গাড়ি চালিয়ে গ্রামে চলে আসতাম। বাবার কবর জিয়ারত করে ফিরে যেতাম।”

নিজ জন্মস্থানে অস্থায়ী সিনেমা হলে “সুড়ঙ্গ” মুক্তি দেওয়ায় কৃতজ্ঞতা ব্যক্ত করেন নিশো।

তিনি বলেন, “ভূঞাপুরে এক সময় দুটি সিনেমা হল ছিল। বর্তমানে একটিও নেই। তারপরও আমার ভক্তরা অস্থায়ী সিনেমা হল বানিয়ে সিনেমা দেখার সুযোগ করে দিয়েছে। আগে কোথাও শুনিনি যে এইভাবে অস্থায়ী সিনেমা হল তৈরি করা হয়েছে। এলাকাবাসী আমার জন্য এটি করেছে। আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এ সময় ভূঞাপুরে সিনেমা হল নির্মাণের সব্বোর্চ চেষ্টার প্রতিশ্রুতি দেন নিশো। তিনি বলেন, “ভূঞাপুরে সিনেমা হল নির্মাণে যেখানে যেখানে যাওয়া দরকার, যাবো। আমরা সিনেমা হল বানিয়েই ছাড়বো।”

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরমেয়র মাসুদুল হক মাসুদ। আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাহিনুল ইসলাম তরফদার বাদল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম বাবু, জেলা পরিষদ সদস্য খায়রুজ্জামান তালুকদার বাবলু প্রমুখ।

About

Popular Links