Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

হিন্দি সিনেমা আমদানির অনুমতি কেন বেআইনি না, জানতে চেয়ে রুল

চার সপ্তাহের মধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, তথ্য ও সম্প্রচার সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে

আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০২৩, ০৫:৪৮ পিএম

পূর্ণাঙ্গ নীতিমালা ছাড়াই হিন্দি সিনেমা আমদানির অনুমতি দিয়ে জারি করা অফিস আদেশ কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি আমদানি নীতি আদেশ ২০২১-২০২৪ এর অনুচ্ছেদ ২৫ (৩৬) (গ) অনুযায়ী গত ২০ এপ্রিল জারি করা অফিস আদেশ কেন অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না, সেটিও জানতে চেয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৮ আগস্ট) বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মো. শওকত আলী চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব রুল জারি করেন। চার সপ্তাহের মধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, তথ্য ও সম্প্রচার সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আমিনুল হক হেলাল, কাজী শোয়ায়েব হাসান ও নাজিম উদ্দিন। রিট আবেদনে বলা হয়েছে, “কোনো সুনির্দিষ্ট এবং পরিপূর্ণ নীতিমালা তৈরি না করে এই ধরনের অনুমতি বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জন্য মোটেও কল্যাণকর না। হিন্দি সিনেমার বিপরীতে বাংলাদেশের যে চলচ্চিত্র রপ্তানি করা হচ্ছে, তার গুণগতমান এবং রপ্তানি করা চলচ্চিত্র ভারতে কতগুলো প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হলো এবং বাংলাদেশের চলচ্চিত্রগুলো ব্যবসাসফল হচ্ছে কি-না, এ বিষয়ে দেখভাল করার কোনো কর্তৃপক্ষ তৈরি করা হয়নি। এর ফলে কম মানসম্পন্ন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র রপ্তানি দেখিয়ে ভারতের বড় বাজেটের একটি চলচ্চিত্র বাংলাদেশ আমদানি করে কিছু ব্যক্তি লাভবান হচ্ছে। দিনশেষে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র মারাত্মক হুমকির মুখে পড়বে।”

অ্যাডভোকেট কাজী শোয়ায়েব হাসান জানান, গত ১০ এপ্রিল বিনিময় শর্তে বাংলাদেশে উপমহাদেশীয় ভাষার চলচ্চিত্র আমদানির জন্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জাতীয় আমদানি নীতি আদেশ ২০২১-২৩ এর ২৫ এর ৩৬ (গ) ধারা অনুযায়ী জারি করা অফিস আদেশ অনুসারে অনুমতি দেওয়া হয়। এই অফিস আদেশ ও আমদানি নীতির ধারাকে চ্যালেঞ্জ করে জনস্বার্থে একটি রিট দায়ের করা হয়েছে।

About

Popular Links