Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজকে তালাকের নোটিশ পাঠালেন পরীমণি

  • ২০২২ সালের শুরুতে বিয়ে করেন রাজ ও পরীমণি
  • দাম্পত্যকলহে গত কয়েক মাস ধরে আলাদা থাকছেন 
  • বিভিন্ন সময় একসঙ্গে দেখা গেছে
আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০২:৪৬ পিএম

পরীমণি ও শরিফুল রাজ দম্পতি দেশের চলচ্চিত্র জগতের এক আলোচিত জুটি। সিনেমায় কাজের চেয়ে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা বেশি হয়।  দাম্পত্য জীবনে টানাপড়েনের কারণে গত কয়েক মাস ধরে আলাদা থাকছেন রাজ ও পরীমণি। 

বিনোদন ভুবনের তারকা হওযায় তাদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রয়েছে বেশ আলোচনা। রাজ-পরীমণির বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে ঢালিউডপাড়াসহ গণমাধ্যমেও কম চর্চা হয়নি।

বেশ কিছুদিন ধরে আলাদা থাকছেন এই জুটি। উঠেছিল বিবাহবিচ্ছেদের গুঞ্জন। শেষ পর্যন্ত সেটিই সত্যি হতে যাচ্ছে।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) শরিফুল রাজকে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন পরীমণি। পরীমণির ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে দৈনিক সমকালের অনলাইন সংস্করণ। তবে রাজ এখনও এ বিষয় কোনো মন্তব্য করেননি।

উল্লেখ্য, গিয়াসউদ্দিন সেলিমের “গুণিন” সিনেমার শুটিংয়ে চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ ও চিত্রনায়িকা পরীমণির প্রথম দেখা। আর সেই সাক্ষাতের এক সপ্তাহের মাথায় ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর তারা গোপনে বিয়ে করেন। ২০২২ সালের ১০ জানুয়ারি সেই খবর প্রকাশ্যে আনেন তারা। একই দিনে সন্তান ধারণের বার্তাটিও দেন এ দম্পতি। এরপর ২২ জানুয়ারি তারা পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে সারেন। একই বছরের ১০ আগস্ট তাদের ঘর আলো করে আসে পুত্রসন্তান শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য।

গত ২০ মে পরীমণিকে রেখে বাসা থেকে বেরিয়ে যান রাজ। ২৯ মে রাতে রাজের ফেসবুক আইডি থেকে রাজ ও তিন অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামাল, তানজিন তিশা ও নাজিফা তুষির ব্যক্তিগত কিছু ছবি ও ভিডিও ফাঁস হয়। এরপরই প্রথম রাজ-পরীর আলাদা থাকার কথা প্রকাশ্যে আসে। স্বামী ও চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের সঙ্গে সংসারে টানাপোড়েনের ইঙ্গিত দিয়ে পরীমণি জানান, রাজের সঙ্গে অনেক চেষ্টা করেও এক ছাদের নিচে থাকতে পারেননি তিনি। রাজের কাছ থেকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ডিভোর্স চেয়েছিলেন এ ঢালিউড অভিনেত্রী। জবাবে রাজও জানিয়েছিলেন, তাদের সংসার থাকছে না, এটা চূড়ান্ত। তার আর কিছু বলার নেই।

About

Popular Links