Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘অদৃশ্য’ যেন সমাজের দৃশ্যমান বাস্তবতা

গুম ষড়যন্ত্র ও রাজনীতির এক সাহসী উপস্থাপন

আপডেট : ০৮ অক্টোবর ২০২৩, ০৩:৫৯ পিএম

ওটিটি প্লাটফর্মগুলোর বেশ প্রশসংনীয় একটি দিক হলো, তথাকথতিত “পুরনো হয়ে যাওয়া” গুণী অভিনেতাদের প্রত্যাবর্তন এবং একইসঙ্গে একই ওয়েব সিরিজ বা সিনেমায় একাধিক তারকার উপস্থিতি। এই যেমন, সম্প্রতি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই’য়ে মুক্তি পেয়েছে ওয়েব সিরিজ “অদৃশ্য”। যেখানে দীর্ঘদিন পর দেখা মিলেছে ভার্সেটাইল অভিনেতা আহমেদ রুবেলের। দীর্ঘ বিরতির পর সম্প্রতি একটি সিনেমা দিয়ে পর্দায় ফিরলেও,“অদৃশ্য” দিয়ে ওটিটিতে প্রথমবার পা রাখলেন মাহফুজ আহমেদ। জুটি বেঁধেছেন আরেক গুণী অভিনেত্রী অপি করিমের সঙ্গে। আর তাতেই পুরো বাজিমাত। শুধু এই তিনজনই নয়; অদৃশ্য যেন জাঁদরেল অভিনয় শিল্পীদের মিলন মেলা।

শম্পা রেজা, শহীদুজ্জামান সেলিম, তানিয়া আহমেদ, শাহাদাত হোসেন, সুমন আনোয়ার, গিয়াসউদ্দিন সেলিমের মতো তারকারা রয়েছেনে এই সিরিজে। তাদের সঙ্গে নিশাত প্রিয়ম, পার্থ শেখ’র মতো তরুণ প্রজন্মের তারকাদের অভিনয়ও ছিল নজরকাড়া।

তবে শুধু একাধিক তারকার উপস্থিতি নয়; গল্পের কারণেও আলাদাভাবে প্রশংসার দাবি রাখে নির্মাতা শাফায়েত মনসুর রানা’র “অদৃশ্য”। রাজনৈতিক ড্রামা ও থ্রিলার ঘরানার সিরিজ এর আগেও নির্মিত হয়েছে। “অদৃশ্য”র গল্পটি একটু বেশিই সাহসী উপস্থাপন। এতে তুলে ধরা হয়েছে আমাদের সমাজের বর্তমান সমযের ঘটমান নানা বাস্তবতা।

দেশে নিখোঁজ কিংবা গুমের ঘটনা উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে। সেটি নিয়ে নানা ধরনের প্রতিবাদ চললেও চিত্রনাট্যে এই বিষয়টি তুলে ধরার সাহস খুব একটা দেখা যায়নি। সেই কাজটি করেছেন নির্মাতা। শুধু নির্মাণ নয়; “অদৃশ্য”র গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেও নিজের সব্যসাচী প্রতিভার প্রমাণ রেখেছেন শাফায়েত মনসুর রানা।

নিখোঁজ ব্যক্তিদের পরিবারের আহাজারি ও অসহায়ত্বের পাশাপাশি গুম কিংবা নিখোঁজ হওয়ার মিথ্য্যা নাটক সাজিয়ে ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা। কিংবা রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলে কাউকে গুম করে ফেলার মতো নির্মম বাস্তবতা তুলে ধরা হয়েছে এই ওয়েব সিরিজে।

কাঁদা ছোড়াছুড়ির রাজনৈতিক সংস্কৃতি, অদক্ষ নেতৃত্ব, ক্ষমতার লোভ, আত্মকেন্দ্রিকতা, স্বার্থপরতা, পরকীয়ায় আসক্তি, বিত্ত বৈভবে বখে যাওয়া প্রজন্ম; বর্তমান সময়ের এমন নানা ঘটমান সত্য তুলে ধরার কাজটি আসলেই সাহসিকতার।

ওয়েব সিরিজটির গল্প আবর্তিত হয়েছে আনিস আহমেদ নামের একজন ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদকে ঘিরে। হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যান তিনি। এমন একজন বিখ্যাত ব্যক্তি নিখোঁজ হওয়ায় নড়েচড়ে বসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। রাজনৈতিক দলগুলো একে অপরকে দোষারোপ করতে থাকে। নিখোঁজ কিংবা গুম হয়ে যাওয়া বিভিন্ন ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন আনিসের স্ত্রী রিজওয়ানা। ঘটনার পরিক্রমায় রাজনীতিতেও দ্রুত উত্থান ঘটে তার। আনিসের পরিবর্ত দল থেকে নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে মনোনয় পান রিজওয়ানা। এদিকে, পরিত্যক্ত একটি ঘরে বন্দী আনিস বেঁচে ফেরার প্রাণান্ত চেষ্টার পাশাপাশি হিসাব মেলানোর চেষ্টা করেত থাকেন; কে তাকে বন্দী করলো, কেন করলো। এরপর হঠাৎ একদিন রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যাওয়া হয় আনসিকে। সুস্থ হয়ে আনিস খুঁজতে থাকেন, কে তাকে বন্দী করেছিল। আর এখানে এসে আরও বেশি জমে ওঠে গল্প।

সাসপেন্স, ড্রামা, ষড়যন্ত্র সবমিলে দর্শকদের এক রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা উপহার দিয়েছে “অদৃশ্য”। দারুণ গল্পের সঙ্গে প্রতিটি চরিত্রের দুর্দান্ত অভিনয় এবং নির্মাণশৈল্পীর অসাধারণ এই সংমিশ্রণ অনেকদিন পর্যন্ত মনে রাখার মতো।

About

Popular Links