Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নানাকে হারালেন পরীমণি

গ্রাম থেকে উঠে আসা শামসুন্নাহার স্মৃতির পরীমণি হয়ে ওঠা অনেকটা সিনেমার কাহিনীর মতোই। মাকে হারিয়েছেন খুব কম বয়সেই; তার বাবারও মৃত্যু হয়েছে দুর্বৃত্তের গুলিতে। পরে অভিভাবকের দায়িত্ব নেন নানা শামসুল হক গাজী

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২৩, ১০:১১ এএম

ঢাকাই শোবিজের আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণির নানা শামসুল হক গাজী মারা গেছেন।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সকালে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ১১ মিনিটে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরীমণির নানার মৃত্যু হয়।

গ্রাম থেকে উঠে আসা শামসুন্নাহার স্মৃতির পরীমণি হয়ে ওঠা অনেকটা সিনেমার কাহিনীর মতোই। মাকে হারিয়েছেন খুব কম বয়সেই; তার বাবারও মৃত্যু হয়েছে দুর্বৃত্তের গুলিতে। বাবা-মা হারা পরীর অভিভাবক হিসেবে সমস্ত প্রতিকূল অবস্থায় পাশে দাঁড়িয়েছিলেন নানা শামসুল হক গাজী। প্রায়ই পরীর পারিবারিক অনুষ্ঠানে দেখা যেত তাকে। তার মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন পরীমণি।

ফেসবুকে চয়নিকা লিখেছেন, “আমাদের শ্রদ্ধেয় নানুভাই... পরীমণির প্রিয় নানুভাই রাত ২টা ১১ মিনিটে এভারকেয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসারত অবস্থায় সবাইকে কাঁদিয়ে আমাদের ছেড়ে পরপারে চলে গেছেন। আজাদ মসজিদে গোসল করানোর পর ভোর ৪টায় পরীমণি নানুভাইকে নিয়ে এখন তার নিজ গ্রামের পথে। সেখানেই নানীর পাশে নানুভাইকে শায়িত করা হবে।”

তিনি আরও লিখেছেন, “সবাই পরীর জন্য, পরীর নানুভাইয়ের জন্য দোয়া ও প্রার্থনা করবেন, যেন পরপারে তিনি শান্তিতে থাকেন। পরী যেন সহ্য শক্তি পায়। আহা! নানুভাই আপনাকে কোনোদিন ভুলব না। আমার দেখা আপনি অসাধারণ সুশিক্ষিত একজন মানবিক মানুষ। আপনার ভালোবাসা অমলিন। শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা।”

পরীমণির নানাবাড়ি পিরোজপুরে। ছোটবেলায় মা মারা যাওয়ার পর নানা বাড়িতেই বেড়ে ওঠেন পরী। নানাবাড়িতে থেকেই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন তিনি। পরীমণির নানা শামসুল হক পিরোজপুরেই থাকতেন। তবে মাঝে মাঝে পরীর আবদারে ঢাকায় ছুটে আসতেন তিনি।

About

Popular Links