Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ক্যান্সারে আক্রান্ত সাবিনা ইয়াসমিন, সিঙ্গাপুরে চলছে চিকিৎসা

  • এই কণ্ঠশিল্পীর মুখগহ্বরে আবারও ক্যান্সার হয়েছে
  • পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া চাওয়া হয়েছে

আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৪:০৭ পিএম

২০০৭ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। সেবার মরণঘাতী এই ব্যাধিকে জয় করে ফিরেছিলেন ভক্তদের মাঝে। ১৭ বছর পর জানা গেল, আবারও ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। চিকিৎসার জন্য তাকে নেওয়া হয়েছে সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালের ন্যাশনাল ক্যান্সার সেন্টারে।

পারিবারিক সূত্রের বরাতে অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউন জানিয়েছে, গত বছরের শেষের দিকে সাবিনা ইয়াসমিনের শরীরে কিছু জটিলতা তৈরি হয়। এরপর পরীক্ষা-নিরীক্ষায় নিশ্চিত হওয়া যায়, শিল্পীর মুখগহ্বরে আবারও ক্যান্সার হয়েছে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে তাকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়।

জানা গেছে, এরইমধ্যে সাবিনার মুখে একটি সার্জারি হয়েছে। শিগগিরই থেরাপি দেওয়া শুরু হবে। পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া চাওয়া হয়েছে শিল্পীর জন্য।

২০০৭ সালে এই শিল্পী প্রথম ওরাল ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। তখন দেশে ও বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন। এরপর থেকে নিয়মিত চেক-আপের মাধ্যমে ভালোই ছিলেন তিনি।

পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরে সঙ্গীতের সঙ্গে আছেন সাবিনা ইয়াসমিন। তার মতো মিষ্টি কণ্ঠ এই বাংলায় দ্বিতীয়টি আসেনি বলেও অনেকে মনে করেন।

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের গানের পাশাপাশি তিনি দেশাত্মবোধক গান কণ্ঠে তুলে সৃষ্টি করেছেন ইতিহাস। তিনি ১৪ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। সঙ্গীতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে সর্বোচ্চ বেসামরিক রাষ্ট্রীয় সম্মাননা “স্বাধীনতা পুরস্কার” ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক রাষ্ট্রীয় সম্মাননা “একুশে পদক” লাভ করেন সাবিনা ইয়াসমিন।

ছোট থেকেই সঙ্গীতের ভুবনে পদচারণা শুরু হলেও চলচ্চিত্রে পূর্ণ নেপথ্য সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে সাবিনা ইয়াসমিনের আত্মপ্রকাশ ঘটে ১৯৬৭ সালে; “আগুন নিয়ে খেলা” চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে। ১৯৭২ সালে “অবুঝ মন” চলচ্চিত্রের “শুধু গান গেয়ে পরিচয়” গানে কণ্ঠ দিয়ে তিনি প্রথম জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।

এ শিল্পীর উল্লেখযোগ্য গানগুলোর মধ্যে রয়েছে- “সব সখীরে পার করিতে”, “এই পৃথিবীর পরে”, “মন যদি ভেঙে যায়”, “ও আমার রসিয়া বন্ধুরে”, “জীবন মানেই যন্ত্রণা”, “জন্ম আমার ধন্য হলো মা গো”, “সব ক’টা জানালা খুলে দাও না”, “ও আমার বাংলা মা”, “মাঝি নাও ছাড়িয়া দে”, “সুন্দর সুবর্ণ”, “একটি বাংলাদেশ তুমি জাগ্রত জনতার” প্রভৃতি।

সাবিনা ইয়াসমিন শেষ প্লেব্যাক করেছেন প্রয়াত চিত্রনায়িকা ও নির্মাতা কবরী পরিচালিত “এই তুমি সেই তুমি” সিনেমার “দুটি চোখে ছিল কিছু নীরব কথা” শিরোনামের একটি গানে। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে গানটিতে কণ্ঠ দেন তিনি। এছাড়া কবরীর “এই তুমি সেই তুমি” সিনেমার চারটি গানে সুরও দেন সাবিনা ইয়াসমিন। এর মাধ্যমে ক্যারিয়ারে প্রথমবার তিনি সুরকার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন।

About

Popular Links