Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অস্কারের চূড়ান্ত লড়াইয়ে যে ১০ সিনেমা

আগামী ১০ মার্চ ঘোষণা হবে অস্কারের ৯৬তম আসরের বিজয়ীদের নাম

আপডেট : ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৫:৫৬ পিএম

সারাবিশ্বের চলচ্চিত্রের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার অস্কার। আগামী ১০ মার্চ লস এঞ্জেলেসের হলিউডের ডলবি থিয়েটারে ২০২৩ সালের জন্য চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শাখায় বিজয়ীদের হাতে অস্কার পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

ইতোমধ্যে অস্কারের ৯৬তম আসরের জন্য ১৮টি ক্যাটাগরিতে চূড়ান্ত মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

চলুন, জেনে নেওয়া যাক সেরা চলচ্চিত্র বিভাগে চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া ১০টি সিনেমা সম্পর্কে-

আমেরিকান ফিকশন

অস্কারের সেরা দশে থাকা অন্যতম চলচ্চিত্র “আমেরিকান ফিকশন”।  এটি কোর্ড জেফারসন পরিচালিত ২০২৩ সালের অন্যতম আলোচিত মার্কিন হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র। ২০০১ সালে পার্সিভাল এভারেট রচিত ইরাসিউর উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত চলচ্চিত্রে দেখা যায়, একজন হতাশ ঔপন্যাসিক মজার ছলে একটি বই লিখেন, যা প্রকাশের পর তাকে খ্যাতি এনে দেয়। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন- জেফ্রি রাইট, ট্রেসি এলিস রস, ইসা রে, ও স্টার্লিং কে. ব্রাউন।

অ্যানাটমি অব অ্যা ফল

“অ্যানাটমি অব অ্যা ফল” স্বামীকে খুনের দায়ে অভিযুক্ত এক লেখিকার গল্প। সিনেমার গল্পে দেখা যায়, স্যান্দ্রা নামে সেই নারী লেখিকা তার স্বামী স্যামুয়েল ও দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ছেলে ড্যানিয়েলকে নিয়ে এক নির্জন পাহাড়ি এলাকায় থাকছিলেন এক বছর ধরে।

স্যামুয়েলকে বাড়ির বাইরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় একদিন। সন্দেহজনক মৃত্যুর জন্য তদন্ত শুরু হয়। সান্দ্রাকে সন্দেহ করা শুরু করেন তদন্তকারীরা। এক বছর পর ড্যানিয়েল তার মায়ের বিচারে অংশ নেন। স্যান্দ্রার একমাত্র ছেলে হয় মামলার সাক্ষী। নৈতিক দ্বিধায় পড়ে যায় সন্তান।

এই খুনের পেছনে লুকিয়ে থাকে আরেকটি সত্য। সব মিলিয়ে পর্দায় মানসিক দ্বন্দ্বটা যেভাবে তুলে ধরেছেন পরিচালক, সেটি অস্কারের দৌঁড়ে এগিয়ে রেখেছে সিনেমাটিকে। সিনেমাটিরপ্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জান্দ্রা হলা।

বার্বি

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় পুতুলকে ঘিরে নির্মিত সিনেমা “বার্বি”। যে সিনেমাটি রয়েছে এক ঝাঁক তারকা। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন গ্রেটা গারউইগ এবং রচনা করেছেন গারউইগ ও নোহ বাউম্বাচ। এতে বার্বি চরিত্রে মার্গো রবি এবং কেন চরিত্রে রায়ান গসলিং অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রটিতে আরও রয়েছেন আমেরিকা ফেরেরা, কেট ম্যাককিনন, মাইকেল সেরা, আরিয়ানা গ্রিনব্ল্যাট, সিমু লিউ, ইসা রে, রিয়া পার্লম্যান, হেলেন মিরেন, উইল ফেরল প্রমুখ। এটি ২০২৩ সালের সর্বোচ্চ আয়কারী সিনেমা।

দ্য হোল্ডওভারস

দ্য হোল্ডওভারস আলেকজান্ডার পেইন পরিচালিত ২০২৩ সালের মার্কিন ক্রিসমাস হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র। এতে অভিনয় করেছেন পল জিয়ামাটি, ডেভাইন জয় র‍্যান্ডলফ, ও ডমিনিক সেসা। ১৯৭০ সালের পটভূমিতে নির্মিত চলচ্চিত্রে দেখা যায় নিউ ইংল্যান্ডের বোর্ডিং স্কুলের একজন ইতিহাসের শিক্ষককে বড়দিনের ছুটিতে কয়েকজন শিক্ষার্থীকে নিয়ে সেখানে থাকতে বাধ্য করা হয়েছে। সিনেমাটি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দারুণভাবে প্রশংসিত হয়েছে। সেই ধারবাহিকতায় বেশ ভালোভাবেই টিকে রয়েছে অস্কারের সেরা ১০ সিনেমার তালিকায়।

কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন

এটি ২০২৩ সালের একটি আমেরিকান ওয়েস্টার্ন ক্রাইম ড্রামা ফিল্ম। “কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন” সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন মার্টিন স্কোরসেজি। তিনি এবং এরিখ রথ ২০১৭ সালের একই নামের একটি বইয়ের ওপর ভিত্তি করে সিনেমাটির চিত্রনাট্য লিখেছেন।

মায়েস্ত্রো

ব্র্যাডলি কুপার পরিচালিত ২০২৩ সালের মার্কিন জীবনীধর্মী সিনেমা “মায়েস্ত্রো”। এটি পরিচালনা করছেন  কুপার । তার সঙ্গে যৌথভাবে এটির চিত্রনাট্য লিখেছেন জশ সিঙ্গার। এটি প্রযোজনা করেছেন মার্টিন স্কোরসেজি, স্টিভেন স্পিলবার্গ, কুপার, ফ্রেড বার্নার, অ্যামি ডার্নিং ও ক্রিস্টি ম্যাকস্কো ক্রিগার। সিনেমাটি মার্কিন সুরকার লিওনার্ড বার্নস্টাইন ও তার স্ত্রী ফেলিসিয়া মন্টেলেগ্রের সম্পর্ককে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে। এতে মন্টেলেগ্রের চরিত্রে অভিনয় করেছেন কেরি মুলিগান এবং বার্নস্টাইন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কুপার, এবং অন্যান্য পার্শ্ব ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ম্যাট বমার, মায়া হক ও সারা সিলভারম্যান প্রমুখ।

ওপেনহাইমার

“ওপেনহাইমার” সিনেমাটি একজন মূলত একজন বিজ্ঞানীর গল্প। জে রবার্ট ওপেনহেইমার (কিলিয়ান মারফি) যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণকারী একজন ইহুদি যিনি রসায়নে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

“ওপেনহাইমার”সিনেমাটি কাই বার্ড এবং মার্টিন জে শেরউইনের “আমেরিকান প্রমিথিউস”-এর ওপর ভিত্তি করে নির্মিত। আপাত দৃষ্টিতে মনে হতে পারে “ওপেনহাইমার” সিনেমাটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং পারমাণবিক অস্ত্রে ঐতিহাসিক দৃশ্যায়ন। কিন্তু সিনেমাটি আসলে সেই জানা ইতিহাসের ভেতরের ইতিহাসকে প্রতিনিধিত্ব করে। জে রবার্ট ওপেনহাইমারের জীবন এবং যুদ্ধের পরে তাকে কী পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছিল সেই অজানা কথাই বড় পর্দায় উঠে এসেছে ক্রিস্টোফার নোলানের হাত ধরে। সাদাকালো এবং রঙ্গিন আবহে দুটি ভিন্ন সময়কে সমান্তরালে নিয়ে আসা এবং সিনেমাটির সংলাপ দর্শকদের কাছে এর আবেদনকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেয়।

পাস্ট লাইভস

“পাস্ট লাইভস” সেলিন সং রচিত ও পরিচালিত ২০২৩ সালে নির্মিত জনপ্রিয় একটি সিনেমা। এটি সেলিনের পরিচালিত প্রথম সিনেমা। এটির গল্প আবর্তিত হয়েছে কৈশোর বয়স থেকে দুই বন্ধুর ২৪ বছরের সম্পর্ককে ঘিরে।  গ্রেটা লি, টেও ইয়ু ও জন মাগারো অভিনীত চলচ্চিত্রটি সেলিনের নিজের জীবনের সত্য ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত অর্ধ-আত্মজীবনীমূলক। চলচ্চিত্রটি সমালোচকদের কাছ থেকে সেলিনের চিত্রনাট্য ও পরিচালনা, নান্দনিক ধরন, এবং লি, ইয়ু ও মাগারোর অভিনয়ের জন্য বিপুল প্রশংসিত।

পুওর থিংস

পুওর থিংস ইয়োর্গোস লান্থিমোস পরিচালিত হাস্যরসাত্মক কাল্পনিক চলচ্চিত্র। অ্যালাসডেয়ার গ্রে রচিত ১৯৯২ সালের একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে এর চিত্রনাট্য লিখেছেন টনি ম্যাকনামারা। এতে অভিনয় করেছেন এমা স্টোন, মার্ক রাফালো, উইলেম ডাফো, রামি ইউসেফ, ক্রিস্টোফার অ্যাবট ও জেরড কারমাইকেল প্রমুখ।

দ্য জোন অব ইন্টারেস্ট

জোনাথন গ্লেজার পরিচালিত “দ্য জোন অব ইন্টারেস্ট” ২০২৩ সালের অন্যতম আলোচিত সিনেমা। মার্টিন এমিসের ২০১৪ সালের একই নামের উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে এর চিত্রনাট্য লিখেছেন গ্লেজার। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও পোল্যান্ডের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্রটি আউশভিৎজ কমান্ড্যান্ট রুডলফ হস ও তার স্ত্রীর কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্পের পাশে তাদের স্বপ্নের জীবন শুরুকে কেন্দ্র করে আবর্তিত। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ক্রিস্টিয়ান ফ্রিডেল ও সান্ড্রা হ্যুলার।

About

Popular Links