Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চেহারায় অকালে বার্ধক্যের ছাপ পড়ার কিছু কারণ

কিছু বদভ্যাসের কারণেই অনেক মানুষ অল্প বয়সেই বুড়ো হয়ে যান। এই বাজে অভ্যাস শরীর ও ত্বকের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২০, ০৫:৫৬ পিএম

তারুণ্য ধরে রাখার ইচ্ছা কার নেই? সময়ের আগে বার্ধ্যক্য কারোই কাম্য নয়। একটা নির্দিষ্ট সময়ের পর চেহারায় বার্ধক্যের ছাপ পড়বে এটাই স্বাভাবিক নিয়ম। তুলনামূলকভাবে আজকাল মানুষ অল্প বয়সেই বুড়িয়ে যাচ্ছে। ৩০ পার হতে না হতেই দেহ ও ত্বকে পড়ে যায় বয়সের ছাপ। শরীরে চলে আসে বার্ধক্য।

জেনেটিক্স বা বংশগতি, ধূমপান, রোদের তাপ, পরিবেশ এবং নানা কারণে আপনি অকালে বুড়িয়ে যেতে পারেন। আপনি প্রতিদিন যেসব খাবার খান সেসব আপনাকে দেখতে পাঁচ বছর বেশি তরুণও করে তুলতে পারে আবার পাঁচ বছর বেশি বুড়িয়েও দিতে পারে।

আগের মতো আবহাওয়া এবং খাবার পাওয়া দুঃসাধ্য ব্যাপার, কিন্তু অন্য সবাই তো এই অল্প বয়সে বুড়িয়ে যান না। কিছু বদভ্যাসের কারণেই অনেক মানুষ অল্প বয়সেই বুড়ো হয়ে যান। এই বাজে অভ্যাস শরীর ও ত্বকের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে থাকে যার কারণে এই অল্প বয়সে বুড়িয়ে যাওয়ার সমস্যায় পড়তে হয় অনেককে।

অকালে চেহারায় বার্ধক্যের ছাপ পড়ার কিছু কারণ-

মানসিক চাপ: ঘরে বাইরে আজকাল প্রায় সবারই মানসিক চাপ একটু বেশি। কিন্তু এই মানসিক চাপ মস্তিষ্কের ক্ষতি করে। অল্পতেই অতিরিক্ত অস্থির হয়ে পড়া, মানসিক চাপ নেওয়া মস্তিষ্কের স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা নষ্ট করে যা বয়সের সঙ্গে সঙ্গে হয়ে থাকে। দুশ্চিন্তা থাকবেই, সবকিছুর সঙ্গে মানিয়ে চলার চেষ্টা করুন, স্বাভাবিকভাবে নিয়ে দুশ্চিন্তামুক্ত রাখুন নিজেকে।

রোদে ঘোরাঘুরি: সূর্যের অতিবেগুণী রশ্মি ত্বকের যতোটা ক্ষতি করে অন্য কোনো কিছুই এতোটা ক্ষতি করতে পারে না। আপনি যদি সানস্ক্রিন না লাগিয়ে বেশি রোদে ঘোরাঘুরি করেন তাহলে বয়স ৩০ পার হতে না হতেই ত্বকে দেখা দেবে বয়সের ছাপ। এছাড়াও সানগ্লাস ব্যবহার না করার কারণে দৃষ্টিশক্তিরও সমস্যা দেখা দেয়।

খাদ্যাভ্যাস: বাইরের তেলেভাজা খাবার ফাস্ট ফুড এই সবই ত্বকের বয়স বাড়ানোর জন্য দায়ী খাবার। চিনি জাতীয় খাবারের কারণেই ত্বক হারাচ্ছে ইলাস্টিসিটি। যার কারণে বুড়িয়ে যাচ্ছে মানুষ। কোমল পানীয় পানের অভ্যাস থাকলে জেনে রাখুন, নিজের হাতেই ক্ষতি করছেন দাঁত ও হাড়ের। এতে অকালেই বার্ধক্য আসছে শরীরে।

ধূমপান ও মদ্যপান: অতিরিক্ত ধূমপান ও মদ্যপান করার অভ্যাস রয়েছে অনেকেরই। কিন্তু ধূমপান ও মদ্যপানের ফলে দেহ ও ত্বক দুটোরই বয়স বেড়ে যাচ্ছে অনেক। গবেষণায় দেখা যায়, যারা নিয়মিত ধূমপান করেন তাদের প্রতিবছরে দেহের যতোটা ক্ষয় হয় তা সাধারণত ৫ বছরে হয়ে থাকে। মদ্যপানের ফলাফল প্রায় একই রকম। মানুষ নিজেই নিজেকে বার্ধক্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

পরিশ্রম না করা: গবেষণায় জানা যায় প্রতিবছর ধূমপানের ও মদ্যপানের কারণে যতো মানুষ মৃত্যুবরণ করেন ঠিক ততো মানুষই অলসতা ও অপরিশ্রমী হওয়ার জন্য করে থাকেন। শুনতে অবাক শোনালেও এটি সত্যি। শারীরিক পরিশ্রম করার মাধ্যমে নানা রোগ ও শারীরিক সমস্যা দেহে বাসা বাঁধতে পারে না। কিন্তু দেহে অলসতা থাকলে কিংবা বসা কাজের কারণে শারীরিক পরিশ্রম না করতে দেহ বার্ধক্যের দিকে যেতে থাকে।

উপুড় হয়ে ঘুমানো: অনেকেরই এই অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু উপুড় হয়ে ঘুমানে মুখ বেকায়দাভাবে বালিশের ওপর থাকে যা ত্বকে রিংকেল পড়ার অন্যতম প্রধান কারণ।

এতে করে অল্প বয়সেই আপনাকে বেশ বয়স্ক মনে হয়। এছাড়াও খাবার হজমে সমস্যা এবং মেরুদণ্ডের ক্ষতি তো রয়েছেই। তাই সাবধান হওয়া বিশেষ প্রয়োজন।

About

Popular Links