Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘সুস্থ হওয়া কোভিড-১৯ রোগীরা কমপক্ষে ৬ মাস সুরক্ষিত’

তিনি বলেন, "যদিও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সঙ্গে প্রাপ্ত ফল কীভাবে সম্পর্কিত তা আমরা নিশ্চিত হতে পারি না, তবে ফলগুলো নির্দেশ দেয় যে প্রাকৃতিক সংক্রমণের পরে কমপক্ষে ছয় মাস রোগীরা পরবর্তী সংক্রমণের বিরুদ্ধে সুরক্ষিত থাকতে পারে

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৬:৪৮ পিএম

কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হওয়া প্রায় সবার দেহে কমপক্ষে ছয় মাস উচ্চ মাত্রায় অ্যান্টিবডি থাকে, যা তাদের এই রোগের পুনরায় সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে পারে। বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) যুক্তরাজ্যের একটি সমীক্ষায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ব্রিটেনের জনগণের মধ্যে আগের কোভিড-১৯ সংক্রমণের মাত্রা পরিমাপ করা হয়েছে এই সমীক্ষায়। পাশাপাশি আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে অ্যান্টিবডিগুলো কতদিন পর্যন্ত ছিল সেই বিষয়েও তথ্য জানা গেছে। এর ফলে পুনরায় সংক্রমণ যেন না ঘটতে পারে সেই উপায়ও শিগগিরই জানা যাবে বলে মনে করছেন তারা। 

"করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর কমপক্ষে ছয় মাস বেশিরভাগ রোগীর দেহে অ্যান্টিবডিগুলো জমা থাকে," যুক্তরাজ্য বায়োব্যাঙ্কের অধ্যাপক এবং প্রধান বিজ্ঞানী নওমি অ্যালেন বলেন। 

সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা কোভিড-১৯ সংক্রমণের জন্য পরীক্ষা করেছিলেন, তাদের মধ্যে ৯৯% রোগীর দেহে তিন মাস ধরে সারস-কোভি-২ অ্যান্টিবডি জমা ছিল। সমীক্ষাটি পুরো ছয় মাস অনুসরণ করার পরে, ৮৮% রোগীর দেহে এখনও জমা রয়েছে। 

তিনি বলেন, "যদিও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সঙ্গে প্রাপ্ত ফল কীভাবে সম্পর্কিত তা আমরা নিশ্চিত হতে পারি না, তবে ফলগুলো নির্দেশ দেয় যে প্রাকৃতিক সংক্রমণের পরে কমপক্ষে ছয় মাস রোগীরা পরবর্তী সংক্রমণের বিরুদ্ধে সুরক্ষিত থাকতে পারে।" 

তিনি আরও বলেন, "যুক্তরাজ্য এবং আইসল্যান্ডের অন্যান্য গবেষণার ফলগুলোর সাথেও এই গবেষণার সামঞ্জস্যপূর্ণ। এটি প্রমাণ করে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডিগুলো এই রোগে আক্রান্ত এবং সুস্থ হয়ে উঠেছে এমন রোগীর দেহে বেশ কয়েক মাস ধরে অবস্থান করতে সক্ষম।" 

গত মাসে প্রকাশিত যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যসেবাকর্মীদের করা একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছিল এমন কারো কমপক্ষে পাঁচ মাস ধরে সুরক্ষিত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে তারা এটিও উল্লেখ করেছে যে অ্যান্টিবডিগুলো ভাইরাসটি বহন এমনকি ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হতে পারে।

About

Popular Links