Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

হাসান শাওনের কবিতা : বজরা বাস

নয় নম্বর বজরা বাসের হ্যান্ডেল ঝুলতে ঝুলতে সে গল্প ফাঁদে

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩০ পিএম

নয় নম্বর বাসের হ্যান্ডেল খুব নাজুক।

স্ক্রু ঢিলা ছিল। সিড়িতে শুধু এক পা রেখে যে তাতে ঝুলেছে, সে বোঝে।

অন্যরা না বুঝুক।

 নয় নম্বর বাসকে বজরা মনে হতো। আর রুটটাকে নদী।

বয়ে চলে পল্লবী থেকে আজিমপুর অবধি।

কত বন্দরই না সে ছুঁয়ে ছুঁয়ে যায়...

১২,সাড়ে ১১, পূরবী, ১১, অরিজিনাল ১০, ১০, ২, সনি সিনেমা, ১, বাঙলা কলেজ, টেকনিক্যাল, দারুস সালাম, কল্যাণপুর, হল শ্যামলী, কলেজ গেট আর আসাদ গেট, আড়ং, রাপা . . .

এর মাঝের ভবনে অনেক প্রহরী। স্নাইপাররা কি ঝিমায় পাশের বহুতল ছাদে?

নয় নম্বর বজরা বাসের হ্যান্ডেল ঝুলতে ঝুলতে সে গল্প ফাঁদে।

এরপর আরও কত স্টপেজ।

 নয় নম্বর বজরা বাসের দিনের ভাড়া নিয়ে সংশয়।

কন্ডাক্টরের মনে -

‘‘মালিক যে খাইস্টা। রাইতে গাড়ি জমা দেওনের সময় যেন কী হয়!’’

চলার চেয়ে এ বজরা থামতোই বেশি। সোবহানবাগের সামনে ৩২ এ দাঁড়ায়।

এক সুবহে সাদিকে যে রোডের বাড়িতে পড়ে ছিলো গোয়েন্দা নয়, একমাত্র মানুষনিষ্ঠ মুজিব, নিথর।

লেকে শিশু। উড়ুক্কু বেলুন। নামে এখানে।

এরামের মাতাল ওঠে, নামে ।

নামে ওঠে সিটি কলেজ, ঢাকা কলেজ, চাঁদনীচক, নিউ মার্কেট, ‘ইনভারসিটি’, শাহনেওয়াজ হল, ইডেন, হোম ইকোনোমিক্স, বুয়েট, ঢাকেশ্বরী, বদরুন্নেসা। বাস ঠাঁসা।  

 কাঙ্ক্ষিত শেষ সিটে যুবকের সাথে ফিসফিস, যৌথ হাসাহাসি!

বজরা বাস সব শোনে। এমনকি আজিমপুর গোরখোদকের কাশি।          

এসব স্মৃতি।

নয় নম্বর বজরা বাস আর নেই শহরে।

ওর না থাকায় রাস্তা নদী কাঁদে ডুকরে।


হাসান শাওনের জন্ম , বেড়ে ওঠা ঢাকার মিরপুরে। পড়েছেন মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি বাঙলা কলেজ, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনিস্টিটিউটে। ২০০৫ সাল থেকে তিনি লেখালেখি ও সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। কাজ করেছেন সমকাল, বণিক বার্তা, ক্যানভাস ম্যাগাজিন ও আজকের পত্রিকায়।

২০২০ সালের ১৩ নভেম্বর হাসান শাওনের প্রথম বই ‘‘হুমায়ূনকে নিয়ে’’ প্রকাশিত হয়।



About

Popular Links