Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভরসা করতে পান ভয়, ভয়কে করুন জয়

এক সঙ্গে, এক ঘরে থাকার পরেও একে অপরের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়, ভর করে অশান্তি

আপডেট : ২২ জুলাই ২০২২, ০৪:৫৮ পিএম

এক সঙ্গে, এক ঘরে থাকার পরেও একে অপরের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়। ভর করে অশান্তি। এমনকি এমন দূরত্ব হয় সন্তানের সঙ্গে বাবা-মায়েরও। মূলত এমনটা হয় ভরসা বা আস্থার সংকটের কারণে।

অনেকে মনে করেন একে অপরকে চিনলে জানলে হয়তো একত্রে থাকাটা সহজ হয়ে ওঠে। কিন্তু এতটুকুই কি যথেষ্ট? যদি তাই হয়, তাহলে বাবা-মা বা সন্তানের সঙ্গে দূরত্ব হয় কেনো? স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালোবাসা কমে যায় কেনো?

এসব প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন দ্য ফোর সেক্রেড সিক্রেটসের লেখক ও আধ্যাত্মিক নেতা শ্রী প্রীথাজি।

তার মতে পৃথিবীর সকল মানুষই ভেতরে ভেতরে কখনো না কখনো কোনো কষ্ট পেয়েছেন। বাবা-মা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা সমাজের কাছ থেকে নানাভাবে কষ্ট পেয়েছেন। আবার অনেকের ভেতরে রয়েছে অতীত তিক্ত অভিজ্ঞতা। সেটা হতে পারে কোনো ভালোবাসার মানুষ, প্রেমিক-প্রেমিকা, বিশ্বস্ত বন্ধু, ভাইবোন বা বাবা-মা। তাদের কাছ থেকে আপনি হতাশ হয়েছেন। সেই কষ্ট হয়তো আপনি উৎরে গেছেন। কিন্তু স্মৃতিটি এখনো রয়েছে। আপনার ভেতরটা বজ্রপাতে পুড়ে যাওয়ার মতো হয়ে গেছে, যে কারণে আপনি মেঘ দেখলেও ভয় পান।

বিশ্বাস বা নিরাপদ বোধ করা কঠিন বলেই আপনি সতর্ক ও অবিশ্বাসী হয়ে উঠছেন। শ্রী প্রীথাজির মতে, আপনি জীবনে এমন অনেককেই চান, যাদের আপনি ভালোবাসেন না, কিন্তু আপনি একা হওয়ার ভয় পান।

এ এক নিরন্তর খেলা মন্তব্য করে তিনি বলেন, এ এক অদ্ভুত খেলার মতো। কাউকে আপনি সঙ্গে রাখবেন কিন্তু দূরত্ব রয়ে যাবে। কাছে থাকবে কিন্তু নিকটে আসতে দেবেন না। নিজের ক্ষোভ পুষে রাখেন কিন্তু প্রকাশ করেন না। কারণ আমরা একা হতে চাই না। একাকীত্বকে ভয় পাই। আমরা মানুষ, আমরা বহুকিছু থেকে পালিয়ে বেড়াই। যার অনেককিছুর ব্যাখ্যা হয়তো আমরা জানি না।

এসব অনুভূতি কাটিয়ে উঠতে নিজেকে সময় দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে শ্রী থ্রীপাজি বলেন, নিজের অতীত অভিজ্ঞতাকে সুন্দরভাবে সমাধানের উপায় হলো নিজেকে অনুভব করা। নিজেকে অনুভব করার সক্ষমতা অর্জন করা। কারণ বুঝতে হবে আপনি যে ব্যথায় পুড়ছেন, অপরজনের মধ্যেও হয়তো একই ব্যথা আছে। ফলে আরেকজনের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে উঠুন। এটাই অন্যের প্রতি আপনার বিশ্বাস ভরসা ফিরিয়ে আনতে পারে।

তিনি বলেন, আপনি যদি কারো কথা মনখুলে শোনেন আর নিজেও প্রাণ খুলে বলেন। সেটা হতে পারে একটা বড় উপশম। কারো কথায় তাৎক্ষণিক ক্ষোভ না জানিয়ে সমাধান খুঁজতে হবে। আর বিষয় গুলো হৃদয় দিয়ে ভাবতে হবে। একে অপরের প্রতি মানবিক সহানুভূতিশীল আচরণই আপনাকে অনেককিছু নতুন করে ভাবতে শেখাবে।

About

Popular Links