Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সেলিম আল দীনের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি 

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০২:০২ পিএম

‘নাট্যচার্য’ সেলিম আল দীনের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। এ উপলক্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের আয়োজনে দুই দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের সভাপতিত্বে প্রো-ভিসি অধ্যাপক নুরুল আলম (শিক্ষা), উপাচার্য অধ্যাপক শেখ মঞ্জুরুল হক সেলিম আল দীনের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ।

এরপরে বিশ্ববিদ্যালয়ে নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ, বাংলাদেশ গ্রামীণ থিয়েটার, ঢাকা থিয়েটার, সেলিম আল দীন ফাউন্ডেশন, তালুকনগর থিয়েটার, শাব্যবানদল ঢাকা, সংগৃহীত সাংস্কৃতিক জোট, জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটার, পপ্পেন্ট থিয়েটার রিসার্চ সেন্টার, টিচার অ্যান্ড স্টুডেন্ট সেন্টার (টিএসসি), কালমা থিয়েটার শহীদ তিতু থিয়েটার এবং সেলিম আল দীন মেমোরিয়াল সোসাইটি তার সমাধিস্থলে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।

ইউএনবি'র প্রতিবেদন অনুসারে, দুপুর ১২টায় ক্যাম্পাসের ওল্ড আর্টস ভবনে বারিন ঘোষের তোলা সেলিম আল দীনের জীবন ও কর্মের ফটোগ্রাফি প্রদর্শনীর উদ্বোধন  করেন নাসির উদ্দিন ইউসুফ।

দুপুর সাড়ে ১২টায় অধ্যাপক ড. রশীদ হারুন সভাপতিত্বে ‘সেলিম আল দীন ও এই জে আমি’ শীর্ষক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রফেসর ড. লুৎফুর রহমান ও অধ্যাপক আফসার আহমেদ বক্তব্য রাখেন। 

আজ সন্ধ্যায় জাহির রায়হান অডিওটোরিয়ামের থিয়েটার ল্যাবে প্রফেসর একেএম ইউসুফ হাসান পরিচালিত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাটকীয় বিভাগের উপস্থাপনায় নাটক ‘চন্দ্রবতী’ প্রদর্শিত হবে।

এছাড়া মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে  কিশোরগঞ্জ ভিত্তিক লোকগানের গ্রুপ ইসলাম উদ্দীন ও তার দল গান পরিবেশন করবেন। সেলিম আল দীন ১৯৭৪ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে যোগ দেন। ১৯৮৬ সালে তিনি নাটক ও নাট্য বিভাগ প্রতিষ্ঠা করেন এবং বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

About

Popular Links