Tuesday, June 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যেসব খাবার পুনরায় গরম করলে ‘বিষাক্ত’ হয়ে যায়

কিছু খাবার রয়েছে, যা রান্না করার পর পুনরায় গরম করা উচিত নয়। এতে খাবারের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়

আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ০৫:৪০ পিএম

সময় এবং শ্রম বাঁচাতে অনেকেই ৩-৪ দিনের খাবার একদিনেই রান্না করে ফ্রিজে রেখে দেন। যখন দরকার পড়ে তখন ফ্রিজ থেকে বের করে গরম করে খান। আবার অনেকেই সহজে খাবার গরম করার জন্য মাইক্রোঅয়েভও কিনেছেন। যাতে কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই খাবার সহজে গরম করা যায়।

তবে এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা রান্না করার পর পুনরায় গরম করা উচিত নয়। এতে খাবারের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়। ওগুলো খেলেই শরীরের ক্ষতি। জেনে নিন, কোন খাবারগুলো পুনরায় গরম করলে বিষাক্ত হতে থাকে।

১. চা

সকালে বা কাজের চাপের মধ্যে এক কাপ চা আপনার মনমেজাজ ভালো করে দিতে পারে। অনেক সময় কাজের চাপে চা বানিয়ে উষ্ণ থাকতেই তা পান করা হয়ে ওঠে না। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে সেই চা অনেকেই আবার গরম করে খেয়ে থাকেন। এটা করা যাবে না। কারণ চায়ের মধ্যে ট্যানিক অ্যাসিড থাকে। চা দ্বিতীয়বার গরম করলে তাতে অ্যাসিডের মাত্রা বেড়ে যায়, যা পান করলে বদহজম বা পাকস্থলীর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২. ডিম

ডিমের মতো স্বাস্থ্যকর খাবার খুব কমই রয়েছে। প্রোটিন, ভিটামিন ও মিনারেলে ভরপুর ডিম। কিন্তু এটি দ্বিতীয়বার গরম করে খাওয়া ঠক নয়। কারণ ডিম দ্বিতীয় বার গরম করলে তার প্রোটিন-গুণ নষ্ট হয়ে যায় এবং ডিমের মধ্যেই নানা ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। এই ব্যাকটেরিয়া পেটে গেলে শরীর খারাপ হতে পারে।

৩. ভাত

ভাত পরিমাণের থেকে বেশি রান্না হয়ে গেলে অনেকেই তা ফ্রিজে তুলে রাখেন। আবার কেউ দুই বেলার ভাত একসঙ্গে রেঁধে রেখে দেন। ভাত একবার ঠাণ্ডা হয়ে গেলে সেখানে নানা ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে শুরু করে। সেই ঠাণ্ডা হওয়া ভাত যদি আবার গরম করা হয়, তবে ব্যাকটেরিয়াগুলোর ক্ষতিকারক প্রভাব বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৪. মাশরুম

মাশরুম খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনই প্রোটিনে ভরপুর। দ্বিতীয়বার গরম করলে মাশরুমের প্রোটিনের কম্পোজিশন ভেঙে যেতে পারে।

৫. আলু

আলুতে এমন অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন পাওয়া যায় যা শরীরের সার্বিক বিকাশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যেমন ভিটামিন বি, ভিটামিন বি৬ এবং সি। এছাড়াও আলু ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, ফসফরাস এবং ম্যাগনেসিয়ামেও সমৃদ্ধ। তবে আলুর তরকারি বার বার গরম করে খাওয়া যাবে না। এতে আলুর যে নিজস্ব পুষ্টিগুণ, তা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। গরম করা আলুর তরকারি খেলে পেটের সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি থেকে যায়।

৬. পালংশাক

পালংশাকের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট কোষের ক্ষয় রোধ করে শরীরকে তারুণ্যদীপ্ত ও সুস্থ–সবল রাখে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। মস্তিষ্কের কোষগুলোকে সতেজ ও কর্মক্ষম রাখে। পাশাপাশি নানা রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতাও রয়েছে এই শাকের। এছাড়াও পালংশাকে থাকে প্রচুর আয়রন। পালংশাক দ্বিতীয়বার গরম করে খেলে আয়রন অক্সিডাইজড হয়ে যেতে পারে, যা থেকে দেহে নানা সমস্যা হতে পারে।

৭. রান্নার তেল

ফুটপাতের খাবার কেন ক্ষতিকারক জানেন? রেস্টুরেন্ট বা রাস্তার পাশের দোকানগুলো একই তেলে বারবার রান্না করে। একই তেল যখন বারবার রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয়, তখন তা আপনার শরীর খারাপের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। কিন্তু শুধু দোকানে নয়, অনেক সময় বাড়িতেও বেঁচে যাওয়া তেল দিয়ে রান্না করা হয়। রান্নায় ব্যবহৃত তেল কোনোভাবেই পুনরায় ব্যবহার করা যাবে না। কারণ এর মধ্যে টক্সিন তৈরি হতে পারে।

About

Popular Links