Saturday, June 15, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জোরে আওয়াজ করে হাসির অভ্যাস থাকলে সতর্ক হোন

হাসতে হাসতে মাথা ঘোরানো কিংবা চোখে অন্ধকার দেখে অজ্ঞান হওয়ার ঘটনাও ঘটে

আপডেট : ০৫ জুন ২০২৪, ০৫:১৮ পিএম

ব্যস্ত জীবনে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মানসিক চাপ। আর এই চাপ থেকে মুক্ত থাকতে হাসিখুশি থাকার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকেরা। শরীর ও মন ভালো রাখতে হাসির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথাও বিভিন্ন গবেষণায় উঠেছে। আর আজকাল তো বিভিন্ন এলাকায় গড়ে উঠেছে হাসির ক্লাব। সেখানে গিয়ে মন খুলে হাসেন অনেকেই।

তবে হাসি শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হলেও অতিরিক্ত হাসি কিংবা জোরে শব্দ করে হাসি কখননো কখনো ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

চিকিৎসকরা বলছেন, জোরে আওয়াজ করে হাসির অভ্যাস যাদের, সেসব মানুষের রক্তচাপ দ্রুত ওঠানামা করে। হাসতে হাসতে হঠাৎ রক্তচাপ বেড়ে গিয়ে হৃদযন্ত্রের সমস্যা হতে পারে। অট্টহাসি হাসতে গিয়ে চোখে অন্ধকার দেখে অজ্ঞান হয়ে গেছেন এমন উদাহরণও রয়েছে।

আর হাসতে গিয়ে জ্ঞান হারানোকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় “লাফটার ইনডিউসড সিনকোপ”

তবে এটি যে জোরে হাসেন এমন সবারই হবে, তা নয়। চিকিৎসকদের মতে, হার্ট দুর্বল, রক্তচাপ মাঝেমধ্যেই ওঠানামা করে এমন লোকজনের এই রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেশি। যারা পানি কম খান, সুষম খাবার খাওয়ার অভ্যাস নেই এবং মাদকসক্ত; তারাও ভুগতে পারেন এমন রোগে।

একবার যদি এমন লক্ষণ দেখা দেয়, তাহলে দেরি না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া খুব জরুরি। হাসতে হাসতে মাথা ধরে যাওয়া, মাথা ঘোরার মতো সমস্যাও দেখা যায় অনেকের। সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া জরুরি।

About

Popular Links