Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চাটনি-আচার তো বানালেন, এবার কাঁচা আম দিয়ে হোক রুপচর্চা

কাঁচা আমে থাকা উপাদান ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে

আপডেট : ০৫ জুন ২০২৪, ১০:৪২ পিএম

কাঁচা আমের ভর্তা খেতে পছন্দ করেন না এমন লোক বোধহয় খুঁজে পাওয়া যাবে না। গরমে ডাল-ভাতের সঙ্গে কাঁচা আমের চাটনি কিংবা আচার তো আছেই। তবে অনেকেই হয়ত জানেন না যে, কাঁচা আম ত্বকের জন্যও বেশ উপকারী।

কাঁচা আমে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের পরিমাণ বেশি। এছাড়াও কাঁচা আমে রয়েছে ভিটামিন এ এবং সি। এই তিনটি উপাদান ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে বেশ কার্যকরী।

কাঁচা আম দিয়ে তৈরি প্যাক সপ্তাহে দু-তিন দিন মুখে মাখলে ব্রণ, বলিরেখা কিংবা ডার্ক সার্কলের মতো অনেক সমস্যাই দূর হতে পারে। চলুন, জেনে নেওয়া যাক রুপচর্চায় কাঁচা আমের ব্যবহার সম্পর্কে-

প্রথমে কয়েক টুকরো কাঁচা আম ব্লেন্ড করে নিন। এরপর তাতে ওটসের গুঁড়ো ভালভাবে মিশিয়ে নিন। সামান্য পরিমাণে কাঁচা দুধ কিংবা গোলাপ জল মিশিয়ে নিতে পারেন। এই মিশ্রণটি মুখে মেখে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলনু। এতে ত্বক হবে মসৃণ।

কাঁচা আম খোসাসহ কেটে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। খোসার ভিতরের দিকে অল্প গোলাপ জল দিয়ে চোখের নিচে আলতভাবে কিছুক্ষণ ঘষুন। চোখের নিচের কালি এবং ফোলাভাব সহজেই দূর হবে।

কাঁচা আম বেটে তার সঙ্গে অল্প টক দই ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। মুখ যদি তৈলাক্ত হয়, তাহলে এর সঙ্গে অল্প পরিমাণে বেসন মিশিয়ে নিতে পারেন। এই প্যাক মুখে মেখে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। বাড়বে ত্বকের জেল্লা।

কাঁচা আম বেটে তার সঙ্গে ডিমের সাদা অংশ মিশিয়ে নিন। মিনিট দশেক এই মিশ্রণ মুখে মেখে রাখুন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়ম করে এই প্যাক মাখলে বলিরেখা দূর হয়ে ত্বক হবে টান টান।

কাঁচা আম চটকে তার সঙ্গে অল্প মধু মিশিয়েও মুখে মাখা যেতে পারে। এই প্যাক মুখে মেখে ২০ মিনিট রেখে দিন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। শুষ্ক ত্বকের সমস্যা দূর হবে। বজায় থাকবে আর্দ্রতা।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

About

Popular Links