Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

লিচুর বীজের যে পুষ্টিগুণের কথা জানলে আপনি অবাক হবেন

সাধারণত লিচুর বীজ রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে খাওয়া হয়

আপডেট : ১০ জুন ২০২৪, ০৩:৩৭ পিএম

জ্যৈষ্ঠকে বলা হয় মধুমাস। গ্রীষ্মের এই মাস দেশীয় ফলের ভরা মৌসুম। বাজারে মিলছে হরেক রকম ফল। এই মৌসুমের রসালো ফলগুলোর মধ্যে লিচু অন্যতম।

সাধারণত খোসা ছাড়িয়ে লিচুর মাংসালো অংশ খাওয়ার পর বীজ ফেলে দেওয়া হয়। অধিকাংশ মানুষের ধারণা, নতুন গাছের চারা বানানো ছাড়া লিচুর বীজ কোনো কাজে লাগে না। তবে বাস্তবতা হলো, লিচুর বীজের রয়েছে বেশকিছু পুষ্টিগুণ।

পুষ্টিবিদেরা বলছেন, আয়ুর্বেদ ঔষধি হিসেবে লিচুর বীজ খাওয়ার রীতি বেশ পুরনো। সাধারণত, লিচুর বীজ রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে খাওয়া হয়।

চলুন, জেনে নেওয়া যাক লিচু বীজের গুণাগুণ সম্পর্কে-

  • লিচুর বীজে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের পরিমাণ অনেকটাই বেশি। যা শরীরে ফ্রি র‌্যাডিক্যালের সমতা বজায় রাখতেও সাহায্য করে।
  • গবেষণায় দেখা গেছে, লিচুর বীজে প্রদাহনাশক গুণ রয়েছে। যা শরীরে ইনফ্লেমেশন জনিত সমস্যা রুখে দিতে পারে।
  • কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময়েও লিচুর বীজ গুঁড়ো সহায়ক। হজম সংক্রান্ত সমস্যা হলেও এই দাওয়াই কাজে লাগে।
  • লিচুর বীজ খেলে রক্তে অতিরিক্ত শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। তবে ইনসুলিনের মাত্রা সঠিক রাখার জন্য যারা নিয়মিত ওষুধ খান, তারা লিচুর বীজ গুঁড়ো করে খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে
  • লিচুর বীজের মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান রয়েছে, তাই ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখতেও এটি বেশ কার্যকরী।

তবে, উপকারের পাশাপাশি বিপদও আছে। লিচুর বীজ বেশি পরিমাণে খেলে কিন্তু ডায়রিয়া হতে পারে। লিচুর বীজ থেকে অ্যালার্জিজনিত সমস্যা হওয়া অস্বাভাবিক নয়। তাই লিচুর বীজ খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে।

এছাড়া, লিচু খাওয়ার সময়ও সতর্ক থাকতে হবে। কারণ, লিচু বীজ গলায় আটকে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। তাই, লিচু বীজসহ মুখে না পুরে মাংসালো অংশ ছাড়িয়ে খাওয়া সবচেয়ে ভালো। বিশেষ করে শিশুদের ক্ষেত্রে লিচু খাওয়ার সময় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। শিশুরা যেন কোনোভাবেই বীজসহ লিচু মুখে না দেয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

 

About

Popular Links