• শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫২ রাত

বৃষ্টির ভবিষ্যদ্বাণী করে ভারতের এই মন্দির!

  • প্রকাশিত ১০:১০ রাত সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯
মন্দির
বৃষ্টির ভবিষ্যদ্বাণী করে ভারতের এই মন্দির! ছবি: সংগৃহীত

প্রচলিত বিশ্বাস, বৃষ্টি হবে কী হবে না, তার আগাম ইঙ্গিত দেয় এই মন্দির! আর সেকারণেই এটি ওই এলাকায় ‘রেন টেম্পল’ নামে বেশি পরিচিত

এটি একটি জগন্নাথ মন্দির। শতাব্দীপ্রাচীন মন্দিরটি রয়েছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের কানপুরের ভিতরগাঁও বেহাতার ঘতমপুর এলাকায়। রথযাত্রার সময় প্রতিবছর এখানে ভক্তদের বিপুল সমাগম হয়, একটি মেলাও হয় সেখানে। খবর আনন্দবাজারের।

অনেকটা বৌদ্ধমঠের মতো দেখতে এই মন্দিরটি সম্রাট অশোকের শাসনকালে তৈরি করা হয়েছিল বলে অনুমান করা হয়। প্রচলিত বিশ্বাস, বৃষ্টি হবে কী হবে না, তার আগাম ইঙ্গিত দেয় এই মন্দির! আর সেকারণেই মন্দিরটি ওইএলাকায় ‘রেন টেম্পল’ নামে বেশি পরিচিত।

কীভাবে আগাম ইঙ্গিত দেয় এই মন্দির? স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বৃষ্টি হতে পারে বিষয়টা তখনই বোঝা যায় যখন প্রখর রোদেও মন্দিরের ছাদ থেকে জল চুঁইয়ে পড়তে থাকে। ৬-৭ দিন আগে থেকে বৃষ্টির ইঙ্গিত দেয় এই মন্দির। ছাদ থেকে চুঁইয়ে পড়া জলের বিন্দু থেকে এটাও বোঝা যায় যে, বৃষ্টির ধরন কেমন হবে, প্রবল না হালকা!

আরও আশ্চর্যের বিষয় হল, বৃষ্টি শুরু হওয়ার পর এই মন্দিরের ছাদ থেকে জল চুঁইয়েপড়া পুরোপুরি নাকি বন্ধ হয়ে যায়। আর সিলিংয়ে জলের চিহ্নও খুঁজে পাওয়া যায় না। ভাল বৃষ্টি হবে কি হবে না তা বোঝার জন্য তাই স্থানীয় কৃষকরা মন্দিরের ছাদের চুঁইয়েপড়া জলের ওপরই ভরসা রাখেন।

আদৌ কি মন্দিরের এই ঘটনার সঙ্গে বৃষ্টির কোনও সম্পর্ক আছে? বিজ্ঞানীরা এনিয়ে গবেষণা শুরু করলেও এর রহস্যভেদ এখনও হয়নি। এমনকি বৃষ্টি না হলেও মন্দিরের সিলিংয়ে কোথা থেকে জল আসে, তারও কোনও সদুত্তর মেলেনি।