• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

বিশ্বের অদ্ভুতুড়ে পাঁচ হোটেল!

  • প্রকাশিত ১২:৩৯ দুপুর ডিসেম্বর ১, ২০১৯
ন্যাচুরা ভাইভ স্কাইলজ (Natura Vive Skylodge), পেরু
ন্যাচুরা ভাইভ স্কাইলজ (Natura Vive Skylodge), পেরু সংগৃহীত

কখনো কখনো কিছু মানুষের চিন্তাধারা ও কর্মকাণ্ড আমাদের মতো সাধারণ মানুষের চোখে অদ্ভুত কিংবা উদ্ভট লাগে! বিশ্বে এমন কিছু হোটেল রয়েছে যা সাধারণ মানুষের ভাবনার অনেক ঊর্ধ্বে!

অদ্ভুত এই পৃথিবীতে ভিন্ন চিন্তাধারার হাজারো মানুষ তাদের নিজস্ব ভাবনা ও দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে জীবনযাপন করে। কখনো কখনো কিছু মানুষের চিন্তাধারা ও কর্মকাণ্ড আমাদের মতো সাধারণ মানুষের চোখে অদ্ভুত কিংবা উদ্ভট লাগে!

আজ আমরা এমন কিছু হোটেল সম্পর্কে জানবো যা সাধারণ মানুষের ভাবনার অনেক ঊর্ধ্বে!

১. ভি-৮ হোটেল (V8 Hotel), জার্মানি

বিশ্বজুড়ে গাড়িপ্রেমীদের জন্য এই হোটেলটি এক আদর্শ জায়গা। জার্মানিতে অবস্থিত এই হোটেলটি দেখে চমকে উঠতে বাধ্য হবেন আপনি। এই হোটেলের প্রত্যেকটি রুম বিশ্বের বিভিন্ন নামি-দামি ব্র্যান্ডের কারের আদলে ডিজাইন করা হয়েছে। এমনকি এই হোটেলের বিছানা ও আসবাবপত্রগুলোও কারের আদলে বিশেষভাবে ডিজাইন করা।

ভি-৮ হোটেল (V8 Hotel), জার্মানি সংগৃহীত

২. ক্যাপসুলভ ভ্যালু কান্ডা (Capsulev Value Kanda), জাপান

জাপানে অবস্থিত ক্যাপস্যুলভ ভ্যালু কান্ডা নিজেই এক আশ্চর্য। এই হোটেলে রাত্রিযাপনের জন্য আপনার জন্য বরাদ্ধ থাকবে ৭ থেকে ৮ ফুট সাইজের একটি ক্যাপসুল রুম। গোটা জাপানজুড়ে এরকম আরও বেশ কয়েকটি ক্যাপসুল হোটেল রয়েছে। একেকটি ক্যাপসুল হোটেলে প্রায় ৬০০ থেকে ৭০০ টি ক্যাপসুল রুম থাকে। এই হোটেলে প্রত্যেক ফ্লোরে আলাদা করে ওয়াশরুম রয়েছে এবং পর্যটকদের জিনিসপত্র রাখার জন্য প্রথম ফ্লোরে আছে একটি লকার। এই ছোট্ট ক্যাপসুল রুমের মধ্যেই টিভি, রেডিও, ওয়াফাই, এসি সহ আদর্শ হোটেলরুমের মতো মোটামুটি প্রায় সব সুবিধাই বিদ্যমান।

ক্যাপসুলভ ভ্যালু কান্ডা (Capsulev Value Kanda), জাপান সংগৃহীত

৩. পোসাইডোন আন্ডার-সি রিসোর্ট (Poseidon Undersea Resort), ফিজি

ফিজিতে অবস্থিত এই হোটেলটি সমুদ্রের তলদেশে বানানো একটি ফাইভ স্টার মানের হোটেল। পোসাইডোন আন্ডার-সি রিসোর্ট সমুদ্রের তলদেশে বানানো পৃথিবীর সর্বপ্রথম একমাত্র ফাইভ স্টার মানের হোটেল। এই হোটেলটি বিয়ে, জন্মদিনসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য ভাড়া দেওয়া হয়ে থাকে। আপনি যদি সমুদ্রের নিচে প্রিয়জনের সাথে একটু ভালো সময় কাটানোর স্বপ্নে বিভোর হয়ে থাকেন তাহলে এই হোটেলটি হবে আপনার জন্য শ্রেষ্ঠ গন্তব্য।

পোসাইডোন আন্ডার-সি রিসোর্ট (Poseidon Undersea Resort), ফিজি সংগৃহীত

৪. জুক্কাসজার্ভি আইস হোটেল (JukkasJarvi Ice Hotel), সুইডেন

সুইডেনের সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থানগুলোর একটি হলো জুক্কাসজার্ভির এই আইস হোটেল। এটি ১৯৯০ সাল থেকে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছিলো। স্থানীয় একটি লেকের জমে থাকা বরফ কেটে নান্দনিক ডিজাইনে বানানো এই হোটেলটি পৃথিবীজুড়ে এক আশ্চর্যের নাম। এই হোটেলের প্রত্যেকটি জিনিস বরফের তৈরি। এখানে ৫০ টির উপরে রুম এবং ভোজনবিলাসীদের জন্য একটি রেস্টুরেন্টও আছে। জুক্কাসজার্ভি আইস হোটেল পৃথিবীর সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ বরফের তৈরি হোটেল। এই হোটেলের তাপমাত্রা সবসময় মাইনাস ৫ ডিগ্রির আশেপাশে থাকে।

জুক্কাসজার্ভি আইস হোটেল (JukkasJarvi Ice Hotel), সুইডেন সংগৃহীত

৫. ন্যাচুরা ভাইভ স্কাইলজ (Natura Vive Skylodge), পেরু

খাঁড়া পাহাড়ের ঢালে ঝুলে থাকা এই হোটেলটি পেরুতে অবস্থিত। এই হোটেলের প্রত্যেকটি কামড়া বৈজ্ঞানিক উপায়ে পাহাড়ের ঢালে ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এই হোটেলে যেতে হলে আপনাকে অবশ্যই গোটা পাহাড় চড়ে তারপর যেতে হবে। এডভেঞ্চারপ্রেমীদের জন্য এই হোটেলটি হতে পারে একটি আদর্শ জায়গা। পাঠক একবার ভেবে দেখুন, পাহাড়ের গা ঘেষে শূন্যে ঝুলে থেকে সন্ধ্যার সূর্যাস্ত দেখতে দেখতে আপনি কফির কাপে চুমুক দিচ্ছেন। এরচেয়ে রোমাঞ্চকর অনুভূতি লিখে প্রকাশ করা সম্ভব নয়।

ন্যাচুরা ভাইভ স্কাইলজ (Natura Vive Skylodge), পেরু সংগৃহীত