• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৭ রাত

শিশুর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় যেসব খাবার

  • প্রকাশিত ০৯:১৩ রাত জানুয়ারী ৬, ২০২০
মোটা শিশু
প্রতীকী ছবি সংগৃহীত

শিশুর যত্নে আমরা কত কিছুই না করি। তবে তাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য খাদ্যতালিকাতেও একটু নজর দেওয়া উচিত

ঋতু পরিবর্তনের সময় দেখা দেয় বাড়তি কিছু অসুখ-বিসুখ৷ এসময় প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশুরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শিশুর যত্নে আমরা কত কিছুই না করি। তবে তাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য খাদ্যতালিকাতেও একটু নজর দেওয়া উচিত।

শিশুর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে তালিকায় রাখতে পারেন এই পাঁচ খাবার।

ফল ও শাকসবজি 

সব ঋতুর শাকসবজি, ফলে প্রচুর গুরুত্বপূর্ণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন পাওয়া যায়। এই খাবারগুলোতে ক্যালরির পরিমাণ কম থাকে। তবে ভিটামিন এ ও সি প্রচুর থাকায় এগুলো শিশুদের রোগপ্রতিরোগ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায় পেয়ারা, কমলা, পেঁপে, বেরী ও মিষ্টি কুমড়া, পেঁয়াজ, সবুজ শাক-সবজি রাখতে হবে।

টকদই 

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে আমাদের শক্তিশালী করে টকদই। এতে থাকা প্রদাহবিরোধী উপাদান আমাদের সুরক্ষা করে। স্বাস্থ্যকর এই খাবারে থাকা ক্যালসিয়াম ও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান মজবুত ও স্বাস্থ্যসম্মত হাড় গঠনে সহায়তা করে।

প্রাণিজ উৎসের প্রোটিন 

প্রাণিজ উৎস থেকে পাওয়া প্রোটিনে প্রচুর অ্যামিনো অ্যাসিড রয়েছে যা দেহের কোষের সুরক্ষা করে। এই প্রোটিন পাওয়া যায় মাছ, পোলট্রি, পনির, ডিম ও দুধে। এছাড়া শস্যজাতীয় সবজির মধ্যে প্রোটিন রয়েছে সয়াবিন, রাজমা, ছোলা প্রভৃতিতে।

মসলাজাতীয় খাবার 

রসুন, আদা, হলুদ প্রভৃতি মসলায় রয়েছে অ্যান্টিভাইরাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান। এটি রক্তে শ্বেতকণিকা উৎপাদন করতে সহায়তা করে। রসুন সর্দি ও ফ্লু উপসর্গ প্রতিরোধে সাহায্য করে।

বাদাম 

আখরোট ও কাজুবাদামে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড যা শরীরে অসুস্থতা প্রতিরোধ করে। সিরিয়াল বা নাশতায় মিশিয়ে খেতে পারেন আখরোট।