• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৯ দুপুর

গ্রিন টি খাওয়ার সঠিক সময়

  • প্রকাশিত ০৪:০৩ বিকেল জানুয়ারী ২১, ২০২০
গ্রিন টি
পিক্সাবে

অনেকে সঠিক সময় না জেনেই গ্রিন টি খেয়ে থাকেন, যার প্রভাব হতে পারে সম্পূর্ণ উল্টো..

গ্রিন টির সাথে আমরা কম বেশি সবাই পরিচিত। গ্রিন টিতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট। এটি যেমন রোগ-প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ায়, তেমনি ক্যানসার প্রতিরোধ করে, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ইত্যাদিও নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এছাড়া ক্যাটেচিন নামক একটি উপাদান থাকে এই চায়ে, যা ভিটামিন ই এবং সি’র থেকেও বেশি শক্তিশালী। গ্রিন টি এমন একটি চা, যা ওজন কমানোর ক্ষেত্রে এবং সাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি উপকারী। আপনি কি জানেন গ্রিন টি কখন খাওয়া উচিত আর কখন উচিত নয়?

গ্রিন টি পান করার সঠিক সময় –

নাস্তা করার পর

সকালের ভারী কিছু দিয়ে নাশতার পর গ্রিন টি খাওয়া উচিত। কেননা খালি পেটে গ্রিন টি খেলে ডিহাইড্রেশনসহ গ্যাস্ট্রিক ও আলসারের সমস্যা হতে পারে।

রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে

আপনি যদি ওজন কমানোর জন্য গ্রিন টি খান তবে তার জন্য সঠিক সময় হল রাতে ঘুমাতে যাওয়ার ঠিক ২ ঘন্টা আগে। রাতে বিছানায় যাওয়ার আগে গ্রিন টি আপনাকে ওজন কমাতে সাহায্য করবে আর এটা অনেক বেশি কাজ করবে ততক্ষণ পর্যন্ত যতক্ষণ না আপনি অন্যকিছু খাবেন। রাতে তো আর আপনি অন্যকিছু খান না তাই ভালো করে কাজ করতে পারে গ্রিন টি। অনেক সময় চা আপনার ঘুম নষ্ট করে এজন্যে চা পান করার সাথে সাথে ঘুমাতে না গিয়ে ঘুমানোর ২ ঘণ্টা আগেই পান করুন।

ব্যায়াম করার পূর্বে

ব্যায়াম করার আধাগন্টা আগে গ্রিন টি পান করুন। যদি আপনি আধাঘন্টা আগে পান করেন তবে এতে করে আপনার কর্মক্ষমতা বাড়বে। এমন কি এটা আপনার ওজন এবং মেদ কমাতে সাহায্য করবে।

খাওয়ার এক ঘণ্টা আগে অথবা পরে

অনেকেই খাবার খাওয়ার পরপরই চা পান করেন। খাবার খাওয়ার সাথে সাথেই গ্রিন টি পান করা উচিত নয়। খাবার খাওয়ার কমপক্ষে ৪৫ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা পরে অথবা আগে গ্রিন টি পান করুন।