• শুক্রবার, আগস্ট ১৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:২২ বিকেল

করোনাভাইরাস: আইসোলেশনে থাকলে অবশ্যই মানবেন যে বিষয়গুলো

  • প্রকাশিত ০৪:০০ বিকেল জুলাই ৯, ২০২০
করোনা-আইসোলেশন
সময়ের অভাবে করতে পারেননি যেসব কাজ, আইসোলেশনের সময়টাতে সেগুলো করতে পারেন। প্রতীকী ছবি: পিক্সেলস

অনেকে সারারাত জেগে মুভি দেখে সারাদিন ঘুমান, এটা একেবারেই ঠিক না। বিশেষ করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ থাকলে সেটি আরও বেশি ক্ষতিকর

কোভিড-১৯ এর লক্ষণ দেখা দিলেও টেস্ট করার আগ পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায় না যে ওই ব্যক্তি আসলেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা। আবার যারা টেস্ট করার পর পজিটিভ বলে শনাক্ত হন তাদেরও আইসোলেশনে থাকতে হয়। যেন তার কাছ থেকে পরিবারের অন্য কেউ বা অপরিচিত কারো মধ্যেও সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে।

কোভিড-১৯ টেস্টে নেগেটিভ না আসা পর্যন্ত আইসোলেশনেই থাকতে হয় লক্ষণ ও উপসর্গ থাকা রোগীদের। এজন্য জানতে হবে আইসোলেশনে কীভাবে থাকা উচিত।

মনোবল দৃঢ় রাখুন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ প্রকাশ পেলে অনেকেই ঘাবড়ে গিয়ে মনোবল হারিয়ে ফেলেন। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, মনোবল না হারিয়ে মানসিকভাবে শক্ত থাকাই এসব লক্ষণ থেকে সেরে ওঠার প্রাথমিক শর্ত।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, বাংলাদেশে তরুণদের মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুহার অনেক কম। সংস্থাটির হিসাবে, বাংলাদেশে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করাদের মধ্যে বেশিরভাগেরই বয়স ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে।

অন্যান্যদের মধ্যে আগে থেকেই স্বাস্থ্য জটিলতা না থাকলে তাদেরও সুস্থ হওয়ার হার বেশি। তাই কোভিড-১৯ আক্রান্ত হলেই যে কেউ মারা যাবে সেটি চিন্তা না করে বরং মনোবল দৃঢ় রাখতে হবে।

সারাদিনের একটি রুটিন তৈরি করুন

আইসোলেশনে থাকার সময় সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে শুরু করে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত কী কী করবেন তার একটি রুটিন বা তালিকা তৈরি করুন এবং মেনে চলার চেষ্টা করুন।

খাওয়া, ঘুম, শরীরচর্চা, বিনোদনমূলক কাজ কখন কত সময় ধরে করবেন তার আলাদা আলাদা তালিকা তৈরি করা যেতে পারে।

চিকিৎসকরা বলছেন, কোনও কাজ যেটি এর আগে সময়ের অভাবে করতে পারেননি সেই কাজ আইসোলেশনের সময়টাতে করতে পারেন। যারা ব্যবসা বা চাকরির সাথে জড়িত তাদের এমনিতেও বেশ ব্যস্ত থাকতে হয়। তারা সেগুলো গুছিয়ে নিতে পারেন।

একইসাথে, বিভিন্ন ধরনের বিনোদনমূলক কাজ যেমন সিনেমা দেখা, বই পড়ার মতো কাজগুলো করতে পারেন।

পর্যাপ্ত ঘুম ও বিশ্রাম 

চিকিৎসকরা বলছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে এবং শরীরের রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে ঘুমের বিকল্প নেই। সেক্ষেত্রে আইসোলেশনের থাকার সময় একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো দরকার। সেই সাথে দুপুরে একঘণ্টা ঘুমিয়ে নেওয়া যেতে পারে।

তবে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার কারণে অনেকেরই শরীর অনেক সময় বেশি দুর্বল হয়ে পড়ে। সেক্ষেত্রে তার বেশি ঘুমানোর দরকার হতে পারে।

তবে আইসোলেশনে যেহেতু একটি ঘরের মধ্যেই বন্দি থাকতে হয় তাই বিশ্রাম নেওয়ার জন্য সারাক্ষণ যাতে বিছানাতেই থাকা না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। রাত এগারোটা থেকে বারটার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা।

অনেকে সারারাত জেগে মুভি দেখে সারাদিন ঘুমান। এটা একেবারেই ঠিক না। বিশেষ করে এই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ থাকলে সেটি আরও বেশি ক্ষতিকর।

পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার খাওয়া

কোভিডে আক্রান্ত হলে সব ধরণের স্বাভাবিক খাবার বেশি বেশি খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, এসময় পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে যাতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সবল হয়।

অনেকে কোভিড-১৯ এর উপসর্গ থাকলে বেশি বেশি গরম পানি, চা, সুপ ও গরম পানি খাওয়ারও পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

ব্যায়াম করুন

আইসোলেশনে থাকার সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করতে শরীর চর্চা করা যেতে পারে বলে জানান চিকিৎসকরা। তবে যেহেতু এসময় জ্বর থাকে তাই ভারী ব্যায়াম এড়িয়ে চলতে হবে।

এছাড়া ফুসফুসকে সুস্থ ও সবল রাখতে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করারও পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ পর্যবেক্ষণ

রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে গেলে শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। আর সেটি মারাত্মক পর্যায়ে পৌঁছালে হাসপাতালে ভর্তি করানোর প্রয়োজন হতে পারে। সেকারণে রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ ঠিক আছে কিনা তা পর্যবেক্ষণের পরামর্শ দেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

চিকিৎসকের পরামর্শ নিন

যেহেতু করোনাভাইরাসের এখনো কোনও ধরনের প্রতিষেধক বা ওষুধ নেই তাই এর চিকিৎসায় মূলত হয় উপসর্গ ভিত্তিক।

যাদের অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা যেমন- ডায়াবেটিক বা উচ্চরক্তচাপ রয়েছে, বয়স বেশি তাদের ক্ষেত্রে এধরনের উপসর্গ দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সতর্কতা নিতে হবে।

58
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail