Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে হিন্দু ছাত্রীকে কোরআন বিলির নির্দেশ আদালতের

অভিযুক্ত ছাত্রী বলেন "একটা ফেসবুক পোস্টের জন্য অন্য ধর্মের একটি সংগঠনে গিয়ে কোরআন বিলির নির্দেশে আমার খুবই অস্বস্তি হচ্ছে"

আপডেট : ১৭ জুলাই ২০১৯, ০৮:৪৭ পিএম

ভারতের ঝাড়খণ্ডে হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক কলেজ ছাত্রীকে পাঁচটি কোরআন কিনে একটি ইসলামিক সংগঠনে গিয়ে তা বিলি করতে নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যের একটি আদালত।

বিবিসি জানায়, ওই ছাত্রীর একটি ফেসবুক পোস্ট মুসলিমদের ধর্মানুভূতিতে আঘাত হেনেছে-এমন অভিযোগ পেয়ে পুলিশ রিচা প্যাটেল নামের ওই ছাত্রীকে গ্রেফতার করে। পরে জামিনের শর্ত হিসাবে কোরআন বিলি করার নির্দেশ দেন আদালত।

তবে রিচা প্যাটেল বিবিসিকে বলেছেন, "একটা ফেসবুক পোস্টের জন্য অন্যধর্মের একটি সংগঠনে গিয়ে কোরআন বিলির নির্দেশে আমার খুবই অস্বস্তি হচ্ছে।"

তিনি বলেন, "আদালতের নির্দেশকে সম্মান জানিয়েও বলতে বাধ্য হচ্ছি, এটা তো আমার মৌলিক অধিকার হরণ করা হচ্ছে! আমি উচ্চতর আদালতে যাওয়ার কথা ভাবছি।"

"ফেসবুকে আমি আমার নিজের ধর্ম নিয়ে কিছু লিখতে পারব না? এ কোথাকার নিয়ম? তারজন্য আমার মতো একজন কলেজ ছাত্রীকে গ্রেফতার করা হবে?" প্রশ্ন রাখেন রিচা।

তার দাবি, যে ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করার জন্য পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছিল, সেটা তিনি 'নরেন্দ্র মোদী ফ্যানস ক্লাব' নামের একটা গ্রুপ থেকে কপি করেছিলেন।

ওই পোস্টে ইসলাম-বিরোধী কোনও কথাই ছিল না বলেও দাবি করেন রিচা।

তার ওই ফেসবুক পোস্টের প্রেক্ষিতে মুসলমানদের সামাজিক সংগঠন 'আঞ্জুমান ইসলামিয়া'-র প্রধান মনসুর খলিফা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

তিনি অভিযোগ করেন, রিচা প্যাটেলের ফেসবুক আর হোয়াটসঅ্যাপ পোস্টের ফলে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের 'অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে'।

এর ফলে সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মনসুর খলিফা।

অভিযোগ পেয়ে ১২ই জুলাই সন্ধ্যায় রিচা প্যাটেলকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ।

গ্রেফতারের খবর ছড়িয়ে পড়তেই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচিসহ নানা এলাকায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে।

এদিকে রিচার পক্ষে আদালতে জামিনের আবেদনও জানানো হয়।

রাঁচি সিভিল আদালতে জামিনের শর্ত হিসাবে বিচারক জানান যে রিচাকে পাঁচটি কোরআন কিনে আঞ্জুমান কমিটি আর গ্রন্থাগারে বিলি করতে হবে, আর সেই প্রাপ্তি স্বীকারের রসিদ আদালতে জমা দিতে হবে।

মনসুর খলিফা বিবিসিকে জানিয়েছেন যে, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী এখনও তিনি পাঁচ কপি কোরআন পাননি রিচার কাছ থেকে।

তবে তার কথায়, পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পরে রিচা প্যাটেলের পরিবার আর সমাজের মান্যগণ্যরা তাকে অনুরোধ করেন যে মেয়েটির বয়স মাত্র ১৯ বছর, তাই ওর ভবিষ্যতের কথা ভেবে যেন বিষয়টি মিটিয়ে নেন। তারপরেই রিচা প্যাটেলের জামিনের আর বিরোধিতা করেননি খলিফা।


About

Popular Links