Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অপর্ণা, সৌমিত্র, অনুরাগ কাশ্যপসহ ৪৯ জনের নামে এফআইআর

ভারতে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনা বাড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন তারা। চিঠিতে ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও গণপিটুনি বন্ধের দাবি এবং ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়ানোর প্রতিবাদ জানানো হয়

আপডেট : ০৪ অক্টোবর ২০১৯, ০২:০৪ পিএম

অপর্ণা সেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, মণি রত্নম, শ্যাম বেনেগালসহ ৪৯ জন বরেণ্য ব্যক্তিত্বের নামে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) বিহারের মুজাফফরপুরে এফআইআর দায়ের হয় বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। 

ভারতে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনা বাড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন তারা। চিঠিতে ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও গণপিটুনি বন্ধের দাবি এবং ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়ানোর প্রতিবাদ জানানো হয়। 

এই ঘটনার পাল্টা প্রতিক্রিয়ায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সমর্থন করে দেশের ৬১জন বিশিষ্ট ব্যক্তি তাকে চিঠি দেন। চিঠিতে স্বাক্ষর করেন পর্নো মিত্র, অভিনেতা বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়, মধুর ভান্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রী, পণ্ডিত বিশ্বমোহন ভট্টর প্রমুখ।

এরপর গত ২৭ জুলাই বিহারের আইনজীবী সুধীর কুমার ওঝা মুজাফফরপুরের সদর পুলিশ স্টেশনে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অপর্ণা সেন, মণি রত্নম, শ্যাম বেনেগাল, অনুরাগ কাশ্যপ, শোভা মুদগাল, রামচন্দ্র গুহসহ এই ৪৯ বরেণ্য ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ করেন। তখন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সূর্যকান্ত তিওয়ারি তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেন।

সুধীরকুমার ওঝা জানান, প্রায় ৫০ জনের স্বাক্ষর ছিল ওই চিঠিতে। তাদের সকলের নাম অভিযুক্ত হিসেবে পিটিশনে উল্লেখ করা হয়। তার অভিযোগ, ওই স্বাক্ষরকারীরা দেশের ভাবমূর্তি কলঙ্কিত করছেন। বিচ্ছিন্নতাবাদী মানসিকতাকে সমর্থন করে প্রধানমন্ত্রীর অসাধারণ পারফরমেন্সকে তারা খর্ব করেছেন। তিনি এই মামলায় সাক্ষী হিসেবে কঙ্গনা রনৌত, মধুর ভান্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রীর নাম উল্লেখ করেছেন।

এর আগে, সরকারপন্থীদের কটাক্ষ করে অপর্ণা সেন বলেন, “এত ভয়! মাত্র ৪৯ জন চিঠি দিল, তাতেই প্রাণনাশের হুমকি চলে এল! আমার হাসি পাচ্ছে। তারমানে কোথাও গিয়ে তাদের আঁতে ঘা লেগেছে।”

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বলেন, “আমার বক্তব্য চিঠিতে স্পষ্ট করে বলেছি। তাতে কার আপত্তি হলো, কে কী বলল, তা নিয়ে আমার বিন্দুমাত্র মাথাব্যথা নেই। তারা আগে নিজেদের ঘর সামলাক।”

About

Popular Links