Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

লন্ডনে বাংলাদেশি দম্পতির জেল

বাংলাদেশে আসার পর জোরপূর্বক ওই কিশোরী মেয়েকে বিয়ে দেন বাবা-মা। বিয়ের জন্য রাজি করাতে গলা টিপে ধরার মতো ঘটনা থেকে শুরু করে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়েছিল কিশোরী মেয়েটিকে।

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০১৮, ০৯:৫৩ এএম

কিশোরী মেয়েকে জোরপূর্বক আত্মীয়ের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার ঘটনায় লন্ডনে আট বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশি দম্পতিকে। সোমবার (৩০ জুলাই) লিডসে এই রায় ঘোষণা করা হয়েছে বলেই জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্ট। 

২০১৬ সালের মে মাসে বাংলাদেশে ঘুরতে আসার কথা বলে ১৮ বছর বয়সী ওই কিশোরীকে নিয়ে দেশে আসেন ওই দম্পতি। কিন্তু, বাংলাদেশে আসার পর জোরপূর্বক ওই কিশোরী মেয়েকে বিয়ে দেন বাবা-মা। বিয়ের জন্য রাজি করাতে গলা টিপে ধরার মতো ঘটনা থেকে শুরু করে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়েছিল কিশোরী মেয়েটিকে।

গলা টিপে ধরার মতো ঘটনা থেকে শুরু করে হত্যার হুমকি দেওয়া বিষয়ে ওই কিশোরী ‘লিডস ক্রাউন কোর্ট’-এ উপস্থিত জুরিদের জানিয়েছে, বিয়ের পাত্র আত্মীয় সম্পর্কে ভাই হওয়ায় বিষয়টিতে তার মত ছিল না। তাকে রাজি করাতে তার বাবা এ ধরনের কাজ করেছেন।

ইনডিপেনডেন্ট-এর বরাতে জানা গেছে, পরবর্তীতে ব্রিটিশ হাই কমিশন-এর সঙ্গে যোগাযোগ করে বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষের সহায়তায় যুক্তরাজ্যে ফেরত যান ওই কিশোরী। এদিকে, ২০১৬ সালের মে মাসের ওই ঘটনায় বাবা-মা’কে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত।     

ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিসের মাইকেল কুইন এ প্রসঙ্গে জানান, বাবা-মার কারণে কিশোরীকে ভ্রান্ত ধারণা এবং যথেষ্ট নিষ্ঠুরতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। নিজের মত না থাকা স্বত্ত্বেও বিয়ের জন্য রাজি হতে হয়েছে।



About

Popular Links