Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতের কারাগারে কাশ্মীরি রাজনীতিকের মৃত্যু

ভারতের একাধিক জেলে প্রায় ৩শ’ কাশ্মীরি রাজনীতিক বন্দি রয়েছেন। রাজ্যটির তিন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লাহ, ওমর আবদুল্লা ও মেহবুবা মুফতিকেও বন্দি রাখা হয়েছে

আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:৫৩ পিএম

গ্রেফতারের ৪মাস পর বন্দিদশাতেই মৃত্যু হল জম্মু-কাশ্মীরের নিষিদ্ধ “জামাত-ই-ইসলামিয়া” সংগঠনের নেতা গোলাম মহাম্মদ ভাটের। চারমাসেরও বেশি সময় উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদের একটি জেলে বন্দি ছিলেন তিনি। 

শনিবার (২১ ডিসেম্বর) সেখানেই মৃত্যুর পর রবিবার বিমানে তার মরদেহ শ্রীনগরে ফিরিয়ে আনা হয় বলে এক প্রতিবেদনে জানায় আনন্দবাজার।

গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ভারত সরকার। জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ, দু’টি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠিত হয়। সেসময় উপত্যকার কয়েকশ’ মানুষের সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় গোলাম মহাম্মদ ভাটকেও। তার বিরুদ্ধে জননিরাপত্তা আইন প্রয়োগ করে এলাহাবাদের নৈনি সেন্ট্রাল জেলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।

সেই থেকে ওই জেলেই বন্দি ছিলেন গোলাম মহাম্মদ। আগামী ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত তার ওপর ওই আইন কার্যকর থাকার কথা ছিল। তার আগেই শনিবার বিকেল ৪টায় মারা যান তিনি।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির কন্যা ইলতিজা। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কেই গোলাম মহম্মদের মৃত্যুর জন্য দায়ী করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা ও রাজস্থানসহ ভারতের একাধিক জেলে এই মুহূর্তে প্রায় ৩০০ কাশ্মীরি রাজনীতিক বন্দি রয়েছেন। রাজ্যটির তিন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লাহ, ওমর আবদুল্লা ও মেহবুবা মুফতিকেও বন্দি করে রাখা হয়েছে।

About

Popular Links