Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঝাড়খণ্ডের নির্বাচনে বিজেপির পরাজয়

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে ৮১ আসনের মধ্যে ২৫টি আসন পেয়ে পরাজিত হয়েছে নরেন্দ্র মোদীর দল

আপডেট : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৪৯ এএম

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টিকে (বিজেপি) হারিয়ে জয় পেয়েছে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা ও কংগ্রেস জোট।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) নির্বাচনের ফলাফলে ২৫টি আসন পায় বিজেপি। ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় শেষ পর্যন্ত জোট পেয়েছে ৪৭টি আসন। যার মধ্যে জেএমএম ৩০টি, কংগ্রেস ১৬টি এবং আরজেডি একটি আসন পেয়েছে। ফলে আরও একটা রাজ্য হারাল বিজেপি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবারের পরাজয়ের মধ্য দিয়ে একবছর মোট পাঁচটি রাজ্যে পরাজিত হলো বিজেপি। গত বছরে, তারা পরাজিত হয়েছিল রাজস্থান, ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশে।

এদিকে আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা (জেএমএম), কংগ্রেস এবং রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি) জোটে সরকার গঠনে তৎপরতা চালাচ্ছে। ফলে মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য তৈরি বর্তমান বিরোধী জোটের অন্যতম মুখ হেমন্ত সোরেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, মঙ্গলবারই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরিষদীয় দলের বৈঠকে বসছেন হেমন্ত। বৈঠকে থাকবেন ঝাড়খণ্ডের তিন বারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্তের বাবা শিবু সোরেনও। জেএমএম সূত্রে খবর, সেই বৈঠকেই হেমন্তকে পরিষদীয় দলনেতা নির্বাচিত করবেন দলের বিধায়করা। ফলে দুয়েকদিনের মধ্যেই রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের কাছে গিয়ে সরকার গঠনের দাবি করতে পারেন হেমন্ত। নতুন সরকারের শপথগ্রহণ হতে পারে ২৭ ডিসেম্বর বলেও জানিয়েছে আনন্দবাজার।

এদিকে, পরাজয়ের দায় স্বীকার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী রাঘুবর দাশ। তিনি বলেন, “পরাজয়ের দায় আমার, বিজেপির নয়।” অপরদিকে পরাজয় স্বীকার করে জেএমম নেতৃত্বাধীন জোটকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এরআগে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেন, “ঝাড়খণ্ডের মানুষের রায় মাথা মেতে নেবে দল।”  


About

Popular Links