• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৫ রাত

‘ফ্যাশন লাইন’-এর ইতি টানলেন ইভাঙ্কা

  • প্রকাশিত ১১:৫১ রাত জুলাই ২৫, ২০১৮
web-ivanka-trump-reuters-1532504003280-1532541016139.jpg
মার্কিন প্রেসিডেন্টের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প। ছবি: ডিটু

বর্তমানে নিজ দেশে উৎপাদনের পক্ষে কথা বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু, খোদ ইভাঙ্কা ট্রাম্পের ‘ফ্যাশন লাইন’-এর পণ্যই উৎপাদিত হত যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে।

মঙ্গলবার নিজ ‘ফ্যাশন লাইন’-এর ইতি টানলেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প। এ বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন, অনানুষ্ঠিক হোয়াইট হাউজ উপদেষ্টা হিসেবে আরও সময় দেওয়ার লক্ষ্যেই ‘ফ্যাশন লাইন’ বন্ধ করেছেন। ইভাঙ্কা আরও জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউজে তিনি ‘তরুণী কর্মজীবি’-দের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করবেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ২০১৬ সালের যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জেতার পর থেকেই সমালোচকদের তোপের মুখে রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার পরিবার। রিয়েল এস্টেট থেকে শুরু করে ট্রাম্প পরিবারের যাবতীয় ব্যবসা চলমান রেখে ‘ওয়াশিংটন ভূমিকায়’ দায়িত্ব পালন করাটা অসম্ভব হয়ে উঠেছিল তার পরিবারের সদস্যদের পক্ষে। 

নিজ ব্যবসা গুটিয়ে নেওয়া এবং ওয়াশিংটনের দায়িত্ব পালন প্রসঙ্গে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ইভাঙ্কা ট্রাম্প বলেন, “১৭ মাস ওয়াশিংটনে কাটানোর পর, আমি নিজেও নিশ্চিত নই কবে নাগাদ বা আদৌ কোনোদিন ব্যবসাতে ফেরত যাব কিনা। কিন্তু, ওয়াশিংটনের হয়ে যে দায়িত্ব পালন করব, সে বিষয়ে নিশ্চিত আমি।”

উল্লেখ্য, বর্তমানে নিজ দেশে উৎপাদনের পক্ষে কথা বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, এ বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়েও জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু, খোদ ইভাঙ্কা ট্রাম্পের ‘ফ্যাশন লাইন’-এর পণ্যই উৎপাদিত হত যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে। ইভাঙ্কা ট্রাম্পের পন্য উৎপাদনকারী দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ও চীনও ছিল। 

তবে পণ্য দেশের বাইরে উৎপাদিত হলেও তা বিক্রি করা হত যুক্তরাষ্ট্রে। এ বিষয়টি নিয়েও মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ছেড়ে কথা বলেননি সমালোচকরা।