• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৬ দুপুর

৭টি একে-৪৭ রাইফেল নিয়ে পালালেন পুলিশ কর্মকর্তা

  • প্রকাশিত ১১:৪৪ সকাল সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮
একে-৪৭
প্রতীকী ছবি

পুলিশের তরফ থেকে এই সাতটি একে-৪৭ রাইফেল চুরির ঘটনার তদন্ত ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। 

জম্মু ও কাশ্মীরে নিযুক্ত ভারতের বিশেষ পুলিশ বাহিনীর (এসপিও) এক কর্মকর্তা  সাতটি একে-৪৭ রাইফেল নিয়ে পালিয়ে গেছেন বলে জানা গেছে। ভারতের পুলিশ কর্তৃপক্ষ থেকে খবরটি নিশ্চিত করা হয়েছে। 

জানা যায়, পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) সংসদ সদস্য আইয়াজ আহমেদ মীরের কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের বাড়িতে ঐ কর্মকর্তা নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন। সেখান থেকেই উনি সাতটি একে-৪৭ রাইফেল নিয়ে পালিয়ে যান। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে কাশ্মীরে পুলিশ এবং এসপিও বাহিনী ত্যাগ করে অস্ত্র নিয়ে সশস্ত্র গোষ্ঠীতে যোগ দেওয়ার ঘটনা এর আগেও বেশ কয়েকবার ঘটেছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস থেকেও বিগত বছর গুলোতে একই ধরণের ঘটনা বেশ কয়েকবার সংঘটিত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের মার্চ মাসেও সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য আলতাফ বুখারির বাসভবনে মোতায়েন থাকা পুলিশ সদস্য নাসের আহমেদ পন্ডিত দুটি রাইফেল নিয়ে পালিয়ে গেছিলেন। পরবর্তীতে পুলিশে সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন তিনি। 

পুলিশের তরফ থেকে এই সাত একে-৪৭ রাইফেল চুরির ঘটনার তদন্ত ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। 

উল্লেখ্য, দুই প্রতিবেশি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জের ধরে জম্মু-কাশ্মীরের স্বাধিনতার দাবীতে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন জঙ্গী সংগঠন। এসব সংগঠনের মদদে প্রায়শই এইসব এলাকায় পুলিশবাহিনীর বন্দুক চুরির ঘটনা ঘটে থাকে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস।