• রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৩ রাত

উরুগুয়ের পর কানাডায় বৈধ হল গাঁজা

  • প্রকাশিত ০১:৪৫ দুপুর অক্টোবর ১৭, ২০১৮
কানাডায় গাঁজা বৈধ হল
কানাডায় বৈধতা পেল গাঁজা। ছবি : রয়টার্স

নতুন আইন অনুসারে, একজন ব্যক্তি নিজের কাছে ৩০ গ্রাম পর্যন্ত শুকনো গাঁজা রাখতে পারবে।

উরুগুয়ের পর এবার দ্বিতীয় দেশ হিসেবে কানাডায় গাঁজা বিক্রি এবং সেবন  বৈধতা পেল। 

বুধবার মধ্যরাতে স্বাস্থ্য, আইন ও জনগণের নিরাপত্তা নিয়ে নানা প্রশ্নের মধ্য দিয়ে সারা দেশজুড়ে একযোগে গাঁজার বাজার খোলা হয়েছে। 

কানাডার প্রায় দেড় কোটি বাড়িতে গাঁজা সংক্রান্ত নতুন আইন ও গণ সচেতনতা মূলক প্রচারণার তথ্য পাঠানো হয়েছে। 

তবে, মাদকাসক্ত হয়ে গাড়ি চালানো সংক্রান্ত সমস্যাগুলো মোকাবেলা করার জন্য পুলিশ বাহিনী কতটুকু প্রস্তুতি তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছেন অনেকেই।

গাঁজা সেবন এবং বিক্রয়কে বৈধতা দেয়া প্রথম দেশ উরুগুয়ে হলেও পর্তুগাল ও নেদারল্যান্ডসে মাদক অনপরাধ হিসাবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত।

গাঁজার ওপর নিষেধাজ্ঞা শেষ করতে কানাডার প্রদেশ এবং পৌরসভাগুলো মাসের পর মাস চেষ্টা করে গিয়েছে।

কানাডার ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টির নেতা জাস্টিন ট্রুডো'র ২০১৫ সালের নির্বাচনী প্রচারণার অঙ্গীকারের মধ্যেছিল গাঁজা বৈধকরণ। এই আইন পাশের মাধ্যমে ট্রুডো তার অঙ্গীকার পূরণ করল।

এই আইনের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডোর যুক্তি ছিল, বিশ্বে গাঁজা সেবনকারীদের মধ্যে কানাডীয়দের শীর্ষে থাকাই প্রমাণ করে কানাডা-র প্রায় শতবর্ষের পুরোনো আইনে ড্রাগ ব্যবহারকে অবৈধ এবং অপরাধমূলক করা হলেও তা অকার্যকর এবং ব্যর্থ।

তার মতে, এই নতুন আইন উদ্দেশ্য মাদককে অপ্রাপ্তবয়স্কদের নাগালের বাইরে রাখা এবং সেই সাথে এর মধ্যে দিয়ে অপরাধীদের ব্যবসায়িক লাভ অনিশ্চিত করা।

নতুন আইন অনুসারে, প্রাপ্তবয়স্করা অনুমোদনপ্রাপ্ত গাঁজা উৎপাদক ও খুচরা বিক্রেতার কাছ থেকে গাঁজার তেল, বীজ ও গাছ এবং শুকনো গাঁজা কিনতে পারবেন। একজন ব্যক্তি নিজের কাছে ৩০ গ্রাম অর্থাৎ এক আউন্স সমতুল্য শুকনো গাঁজা রাখতে পারবে।

গাঁজা দেয়া খাবার এখনি কিনতে না পারলেও আগামী এক বছরের মধ্যে এ বিষয়ক একটি বিল কার্যকর হতে যাচ্ছে। এই বিলম্বটা করা হচ্ছে সরকারকে এসব পন্যের একটি নির্দিষ্ট বিন্যাস সম্পৃক্ত সম্ভাব্য নিয়মগুলো নিয়ে কাজ করার জন্য সময় দিয়ে। 

এই আইন অনুসারে, একজন কানাডীয় এখন প্রকাশ্যে ৩০ গ্রামের বেশী গাঁজা নিজের সঙ্গে রাখতে পারবে না, বাড়িপ্রতি চারটির বেশী গাঁজার গাছ লাগাতে পারবে না, এবং কোনভাবেই অনুমোদনহীন কারও কাছ থেকে কিন্তে পারবে না।