• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৪৩ সকাল

যৌন হয়রানির শিকার শিশুদের কাছে ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

  • প্রকাশিত ১২:৫৫ দুপুর অক্টোবর ২২, ২০১৮
অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন
অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। ছবি: সৌজন্য

তদন্তকারীদল ৮ হাজারেরও বেশি ভুক্তভোগীর সাক্ষ্য নিয়ে জানতে পারে, গির্জা, স্কুল ও ক্রীড়াসংঘের মত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানেই যৌন হয়রানির বেশিরভাগ ঘটনা ঘটেছে

গত কয়েক দশক ধরে চলা যৌন হয়রানির ঘটনার শিকার শিশুদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। সোমবার শতশত মানুষ পার্লামেন্টে দেওয়া মরিসনের এই আবেগতাড়িত ভাষণ শুনতে ক্যানবেরায় সমবেত হয়।

পাঁচবছরের অধিক সময়ের তদন্ত শেষে জানা যায়, অস্ট্রেলিয়ায় গত কয়েক দশকে ১০হাজারেরও বেশি শিশু রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে। তদন্তকারীদল ৮হাজারেরও বেশি ভুক্তভোগীর সাক্ষ্য নিয়ে জানতে পারে, গির্জা, স্কুল ও ক্রীড়াসংঘের মত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানেই যৌন হয়রানির বেশিরভাগ ঘটনা ঘটেছে। মরিসন বলেন, আজ শেষপর্যন্ত আমরা আমাদের শিশুদের গুমরে ওঠা চিৎকারের সম্মুখীন হয়েছি।

তিনি বলেন, আমাদের অবশ্যই ওইসব বীভৎস ঘটনার শিকার শিশুদের কাছে অবনত হয়ে ক্ষমা চাইতে হবে। কেন শিশুদের কান্না এবং তাদের মা-বাবারা অবহেলিত থাকবেন? কেন আমাদের বিচারব্যবস্থা এতবড় অপরাধের ক্ষেত্রে এমন অন্ধ আচরণ করলো? আর কেনইবা এসব ঘটনা তদন্তে এত সময় লাগলো? 

মরিসন বলেন, আমাকে কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেছে, কোনও বিদেশি সেনাবাহিনীর হাতে তারা নির্যাতিত হয়নি, তারা নির্যাতিত হয়েছে নিজেদের দেশের মানুষের দ্বারা এবং এই ঘটনাগুলো ঘটে গেছে দিনের পর দিন, সপ্তাহের পর সপ্তাহ, মাসের পর মাস আর দশকের পর দশক।