• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৫ রাত

জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকার হারাচ্ছে অভিবাসীরা?

  • প্রকাশিত ০৮:৫৯ রাত অক্টোবর ৩০, ২০১৮
যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত
যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত। ছবি: এএফপি

পিউ রিসার্চ সেন্টারের ২০১৫ সালের জরিপ অনুসারে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাংলাদেশি অভিবাসীর সংখ্যা প্রায় দুই লাখ

যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণকারী সব শিশুই মার্কিন নাগরিকের মর্যাদা পেয়ে থাকে। স্বয়ং যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের চতুর্দশ সংশোধনীতে শিশুদের নাগরিকত্বের এই অধিকারটি নিশ্চিত করা হয়েছে। কিন্তু মঙ্গলবারের এক সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে এই ধারার ইতি টানতে যাচ্ছেন তিনি। 

এএফপি-এর বরাতে জানা গেছে, মূলত অভিবাসী পিতা-মাতার শিশুদের মার্কিন নাগরিকত্ব পাওয়া নিয়েই ট্রাম্পের ঘোর আপত্তি। অন্যদিকে পিউ রিসার্চ সেন্টারের ২০১৫ সালের জরিপ অনুসারে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাংলাদেশি অভিবাসীর সংখ্যা প্রায় দুই লাখ।  

এএফপি’র তথ্য অনুযায়ী, নিজ সংবিধান পরিবর্তনের বেশ কিছু প্রক্রিয়া রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। তবে এমন কোনো প্রক্রিয়া বিদ্যমান নেই, যাতে বলা আছে, প্রেসিডেনশিয়াল আদেশের মাধ্যমে সংবিধানে পরিবর্তন আনা সম্ভব।

তারপরেও এমনটাই দাবি করছেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভাষ্য অনুযায়ী, শুধু তার একটি নির্বাহী আদেশের মাধ্যমেই সংবিধানে সংশোধন করা সম্ভব। আগামী ৬ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে মিডটার্ম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আসন্ন এই নির্বাচনের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি হিসেবে অভিবাসন ইস্যু নিয়ে সার্বিক কাজ করার কথা জানিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেছেন, “আমরা বিশ্বের একমাত্র দেশ, যেখানে কোনো ব্যক্তি আসেন, শিশু জন্ম নেয় এবং পরবর্তী ৮৫ বছর মার্কিন নাগরিকের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করেন। এটি হাস্যকর প্রক্রিয়া এবং এর ইতি টানা উচিত।”         

বিষয়টি নিয়ে আইনি পরামর্শকদের সঙ্গে কথা হয়েছে এবং পরিবর্তন কার্যকর হওয়ার পথে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প। এ বিষয়ে তিনি আরও বলেছেন, “পুরো বিষয়টিই প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে এটি কার্যকর করা হবে।”