• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০২ রাত

শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টে মন্ত্রীদের বেতন-ভাতা আটকানোর প্রস্তাব পাস

  • প্রকাশিত ০৮:১২ রাত নভেম্বর ৩০, ২০১৮
শ্রীলঙ্কান পার্লামেন্ট
শ্রীলঙ্কান পার্লামেন্। ছবি: এএফপি।

মাহিন্দা রাজাপাকসের মন্ত্রিসভার সদস্যরা এই ভোটাভুটি অবৈধ বলে দাবী করেছেন

মন্ত্রীদের বেতন এবং ভ্রমণ ভাতা বন্ধে আনা প্রস্তাব শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্ট সদস্যদের ভোটে পাস হয়েছে। শুক্রবার ২২৫ সদস্যের পার্লামেন্টে ১২২-০ ভোটে পাস হয়।

তবে, মাহিন্দা রাজাপাকসের মন্ত্রিসভার সদস্যরা এই ভোট বয়কট করেন। তারা এই ভোটাভুটি অবৈধ বলে দাবী করেন।      

এদিকে, শ্রীলঙ্কান পার্লামেন্টের স্পিকার কারু জয়সুরিয়া বলেন, “মন্ত্রী, উপমন্ত্রী, এবং প্রতিমন্ত্রীদের বেতন-ভাতা স্থগিতের প্রস্তাব পাস হয়েছে। এখন আনুষ্ঠানিকভাবে এই সিদ্ধান্ত মন্ত্রিপরিষদ সচিবালয়কে জানানো হবে”। 

তবে, নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “এই পদক্ষেপ আসলে কিভাবে কার্যকর হবে তা পরিস্কার নয়। কারণ এটি কার্যকর করতে যেসব ধাপ পার হতে হয় তা নিয়ে প্রশ্ন আছে”।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার একই রকম একটি ভোটাভুটির মাধ্যমে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বাজেট কমানো হয়েছিল। তবে, রাজাপাকসের অনুগতরা ওই ভোটাভুটিকে অবৈধ ঘোষণা করে স্পিকারের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এর প্রতিক্রিয়ায় বর্তমান মন্ত্রী ‘আজকের এই পদক্ষেপ অবৈধ। আমরা বিষয়টি স্পিকারকেও জানিয়েছি”।

উল্লেখ্য, গত মাসে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহেকে বরখাস্ত করে রাজাপাকসেকে নিয়োগ দিলে দেশটিতে চরম রাজনৈতিক সংকটের সূচনা হয়। প্রসঙ্গত, পার্লামেন্টে রাজাপাকসের দলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই।

ইতোমধ্যেই পার্লামেন্ট থেকে দুইবার রাজাপাকসেকে বহিস্কার করলেও তিনি পদত্যাগ করেননি। তবে, নতুন এই ভোটাভুটি রাজাপাকসের উপর চাপের সৃষ্টি করবে বলে ধারণা করছেন দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।