• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০২ রাত

নিজস্ব প্রযুক্তির যুদ্ধজাহাজ উদ্বোধন করলো ইরান

  • প্রকাশিত ০৯:১৪ রাত ডিসেম্বর ১, ২০১৮
সাহান্দ ডেস্ট্রয়ার
ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তির যুদ্ধজাহাজ সাহান্দ ডেস্ট্রয়ার। ছবি: এএফপি।

জাহাজটি একবার যাত্রা শুরু করলে ৫ মাসের মধ্যে কোনও জ্বালানির দরকার পড়বে না

নিজদেশে তৈরি নতুন প্রযুক্তির একটি যুদ্ধজাহাজের উদ্বোধন করেছে ইরানের নৌবাহিনী। নতুন তৈরি এই যুদ্ধজাহাজটি রাডারকে ফাঁকি দিতে সক্ষম বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। জাহাজটির নাম সাহান্দ ডেস্ট্রয়ার। 

ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের সূত্রে জানা গেছে জাহাজটি একবার যাত্রা শুরু করলে ৫ মাসের মধ্যে কোনও জ্বালানির দরকার পড়বে না। শনিবার, জাহাজটি একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানটি দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

নতুন তৈরি সাহান্দ ডেস্ট্রয়ার নামক এই যুদ্ধজাহাজে হেলিকপ্টার অবতরণের ব্যবস্থা, টর্পোডো উৎক্ষেপক, বিমান বিধ্বংসী ব্যবস্থা, জাহাজ বিধ্বংসী অস্ত্র, পানির ওপর থেকে অন্য লক্ষ্যবস্তু এবং সমুদ্র থেকে আকাশে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করার ব্যবস্থা রয়েছে।

যুদ্ধজাহাজটির প্রস্তুতকারক শিপইয়ার্ডের প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল আলীরেজা শেইখি নতুন এই যুদ্ধজাহজাটি প্রসঙ্গে বলেন, "ইরানি নৌ-বাহিনীর স্থানীয় কারিগরি জ্ঞানের ওপর ভিত্তি করে সাহসী ও সৃজনশীল নকশা করে জাহাজটি তৈরি করা হয়েছে"। 

এদিকে, ইরানি নৌবাহিনীর কমান্ডার অ্যাডমিরাল হুসেইন খানজাদি বলেছিলেন, "ইরানের সামরিক বাহিনী এখন অস্ত্রসহ সব সামরিক সরঞ্জাম নির্মাণে স্বনির্ভরতা অর্জন করেছে। নতুন জাহাজে বিদ্যমান অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দেখে শত্রুরা হতবাক হয়ে যাবে।"

উল্লেখ্য, ইরান ২০১০ সালে সর্বপ্রথম নিজস্ব প্রযুক্তিতে জাহাজ নির্মাণ করে। তখন ইরানের অধিকাংশ যুদ্ধসামগ্রী যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানী করা হত।