• রবিবার, জুন ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২০ দুপুর

শীর্ষ গাঁজা সেবনকারী শহরের তালিকায় করাচি-দিল্লি-মুম্বাই

  • প্রকাশিত ০৫:৫৬ সন্ধ্যা জানুয়ারী ৭, ২০১৯
পাকিস্তান-গাঁজা
লাহোরে ধর্মীয় উরস উৎসবে গাঁজার সিগারেট তৈরি করছে এক পাকিস্তানি যুবক। ছবি: এএফপি।

২০১৮ সালে করাচী শহরে ৪১.৯৫ টন এবং দিল্লিতে ৩৮.২৬ টন গাঁজা সেবন করা হয়েছে

উপমহাদেশে নিষিদ্ধ মাদক গাঁজা সেবনের তালিকায় আশ্চর্যজনকভাবে শীর্ষ দশে রয়েছে পাকিস্তানের বন্দর নগরী করাচি এবং ভারতের রাজধানী দিল্লি ও প্রধান বাণিজ্যিক শহর মুম্বাই।

সম্প্রতি, উইড ইনডেক্স- ২০১৮'র এক জরিপে এসব তথ্য উঠে এসেছে। জরিপে পাকিস্তানের করাচি গাঁজা ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম শহর হিসেবে স্থান পেয়েছে। ২০১৮ সালে করাচী শহরে মোট ৪১.৯৫ টন গাঁজা সেবন করেছে শহরটির অধিবাসীরা। 

৩য় স্থানে রয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লী। এই শহরের অধিবাসীরা ৩৮.২৬ টন গাঁজা ব্যবহার করেছেন ২০১৮ সালে। এছাড়া, উইড ইনডেক্সে প্রথম স্থানে রয়েছে নিউইয়র্ক। যুক্তরাষ্ট্রের এই শহরটিতে মোট ৭৭.৪৪ টন গাঁজা সেবন করেছেন নিউইয়র্কের বাসিন্দারা।


এই তালিকায় সেরা ১০ শহরের মধ্যে যথাক্রমে স্থান করে নিয়েছে- লস আঞ্জেলেস, কাইরো, মুম্বাই, লন্ডন, শিকাগো, মস্কো এবং টরোন্টো।

গত বছর বাসায় গাঁজা তৈরির উপকরণ উৎপাদনকারী ইসরায়েলী প্রতিষ্ঠান 'সিডো' পরিচালিত জরিপেও সবচেয়ে বেশী গাঁজা ব্যবহারকারী শহরের তালিকায় ২য় স্থানে ছিল পাকিস্তানের করাচি শহর। ঐ জরিপটি ১২০টি দেশের মধ্যে চালানো হয়েছিল।

সিডো'র পরিচালিত ঐ জরিপের সেরা দশের তালিকায় পাকিস্তানের প্রতিবেশী দেশ ভারতের মুম্বাই এবং দিল্লীও স্থান করে নিয়েছিল।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ এশিয়াতে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে কম দামে গাঁজা বিক্রি করা হয়। এখানকার গাঁজার মানও তেমন উন্নত বলেও উল্লেখ করা হয়েছে উইড ইনডেক্সের ২০১৮ সালের জরিপের ফলাফলে।