• শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫২ রাত

শ্রীলঙ্কা: বোমা হামলার নেতা হোটেলে বিস্ফোরণে নিহত

  • প্রকাশিত ০৩:২০ বিকেল এপ্রিল ২৬, ২০১৯
শ্রীলঙ্কার গির্জা ও হোটেলে সিরিজ বোমা হামলা
শ্রীলঙ্কার গির্জা ও হোটেলে সিরিজ বোমা হামলা। ছবি: এএফপি

পুলিশ বলছে, হামলাকারীরা স্থানীয় জিমে কাজ করতো এবং জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ফুটবল খেলতো।

শ্রীলঙ্কায় গত রবিবার ইস্টার সানডে হামলা চালানো জঙ্গি গোষ্ঠির সন্দেহভাজন নেতা ওইদিনই নিহত হয়েছেন বলে দেশটির কর্মকর্তারা দাবি করেছেন।

তিনটি হোটেল ও তিনটি গির্জায় চালানো ভয়াবহ ওই হামলায় প্রথমে তিন শতাধিক নিহতের কথা জানালেও পরে শ্রীলঙ্কার পক্ষ থেকে বলা হয়, হামলায় কমপক্ষে ২৫০ জন নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) এক ‍টুইট বার্তায় পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় জঙ্গি গোষ্ঠি ন্যাশনাল তৌহিদ জামাতের নেতা মোহামেদ জাহরান ঘটনার দিন সাংরি-লা হোটেলে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত হন। খবর- এপি'র।

পুলিশ বলেছে, তারা জঙ্গি গোষ্ঠির সেকেন্ড-ইন-কমান্ডকে গ্রেপ্তার করেছে।

তারা জানিয়েছে, তদন্তকারীরা নিশ্চিত হয়েছেন যে, জঙ্গিরা ‘আর্মি মোহিদীন’ এর কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছে। এই প্রশিক্ষণ বিদেশে এবং শ্রীলঙ্কার পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশে সম্পন্ন হয়েছে।

পুলিশ আরও বলছে, হামলাকারীরা স্থানীয় জিমে কাজ করতো এবং জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ফুটবল খেলতো।

তারা বলেন, রাজধানীর কলম্বো উপকূলে কাদওয়াথার একটি গাড়ি বিক্রেতার কাছ থেকে হামলায় ব্যবহৃত গাড়িটি কেনা হয়।

তারা জানায়, বোমা হামলার সাথে জড়িত গ্রেপ্তার হওয়া তাম্র কারখানার এক অপারেটর মোহিদীনকে উন্নত বিস্ফোরক ডিভাইস তৈরি করতে সাহায্য করেছিল এবং শ্রীলঙ্কার সামরিক বাহিনীর বিক্রি করা খালি কার্তুজ কিনেছিল।

কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিশেনা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আইএস এর সাথে যোগাযোগ আছে এমন ১৪০ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং আইএসআইএস কার্যক্রম সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করার সক্ষমতা শ্রীলঙ্কার রয়েছে।

তিনি বলেন, "আমরা সম্পূর্ণভাবে আইএস কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করবো এবং জনগণকে স্বাধীন ও শান্তিপূর্ণভাবে বেঁচে থাকার পরিবেশে তৈরি করবো।"

এদিকে আবারও হামলার সতর্কবার্তার কারণে শুক্রবার শ্রীলঙ্কায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।