• সোমবার, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৫ রাত

সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম জরুরি অবস্থা তুলে নিল শ্রীলঙ্কা

  • প্রকাশিত ০৭:০২ রাত আগস্ট ২৪, ২০১৯
শ্রীলঙ্কার গির্জায় হামলা
হামলার পর গির্জার সামনে শ্রীলঙ্কার নিরাপত্তা বাহিনীর সতর্ক অবস্থান। ছবি: রয়টার্স (ফাইল ছবি)

জরুরি অবস্থার আইনে দেশটির সেনাবাহিনী ও পুলিশ সন্দেহভাজনদের গ্রেপ্তার ও আটকে ব্যাপক ক্ষমতা পেয়েছিল

চলতিবছরের এপ্রিলে ইস্টার সানডের দিন সন্ত্রাসী হামলায় ২৫০ জনেরও অধিক নিহত হওয়ার ঘটনায় জারি করা জরুরি অবস্থা চারমাস পর তুলে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

দেশটির প্রেসিডেন্ট কার্যালয় শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে বলে বার্তা সংস্থা এপি'র একটি খবরে বলা হয়। এদিন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা জরুরি অবস্থার মেয়াদ আরেক মাস বাড়ানোর আদেশে সই না করার মাধ্যমে বিষয়টির ইতি টানেন।

উল্লেখ্য, রাজধানী কলম্বো ও আশপাশে এবং পূর্বাঞ্চলের শহর বাত্তিকালোয়ায় তিনটি গির্জা ও হোটেলে ভয়াবহ বোমা হামলার জন্য দুটি স্থানীয় মুসলিম গোষ্ঠীকে দায়ী করে শ্রীলংকার সরকার।

সাতজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী এ আক্রমণে অংশ নেন। সেই সাথে হামলায় ব্যর্থ হওয়ার পর একজন এবং ধরা পড়া এড়াতে আরেকজন আত্মহত্যা করেন।

পরে জরুরি অবস্থার আইনে দেশটির সেনাবাহিনী ও পুলিশ সন্দেহভাজনদের গ্রেপ্তার ও আটকে ব্যাপক ক্ষমতা পেয়েছিল।

গত ২১ এপ্রিল চালানো এহামলায় কয়েকজন বিদেশি পর্যটকও নিহত হন। যার ফলে শ্রীলঙ্কার লাভজনক পর্যটন শিল্পে গুরুতর অবনতি দেখা দেয়।