• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৬ দুপুর

কাশ্মীরে গ্রেনেড বিস্ফোরণে আহত ৭, আশঙ্কাজনক ৩

  • প্রকাশিত ০৯:৩৪ সকাল অক্টোবর ১৩, ২০১৯
কাশ্মীর
কাশ্মীরের শ্রীনগর। ছবি: রয়টার্স

গত ৫ আগস্ট ওই রাজ্য থেকে কয়েক দশকের পুরনো বিশেষ সুযোগ-সুবিধা নির্দেশিত ৩৭০ ধারা বাতিল ঘোষণার পর থেকেই থমথমে ছিল গোটা উপত্যকা। জম্মু ও কাশ্মীরকে কড়া নিরাপত্তাবেষ্টনীতে মুড়ে একরকম অবরুদ্ধ অবস্থায় রাখে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার

সন্ত্রাসের আতঙ্ক যেন তাড়া করে বেড়াচ্ছে ভূস্বর্গখ্যাত জম্মু ও কাশ্মীরকে। শনিবার (১২ অক্টোবর) ভারতের কাশ্মীরের শ্রীনগরে একটি বাজার এলাকায় গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে  সন্ত্রাসীরা। 

ওই হামলার জেরে কমপক্ষে সাতজন আহত হয়েছেন বলে সেখানকার পুলিশ জানিয়েছে। এরমধ্যে আবার তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। এক প্রতিবেদনে এখবর জানিয়েছে এনডিটিভি।

গ্রেনেড হামলায় আহত সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরের কঠোর নিরাপত্তা সত্ত্বেও এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

গত ৫ আগস্ট ওই রাজ্য থেকে কয়েক দশকের পুরনো বিশেষ সুযোগ-সুবিধা নির্দেশিত ৩৭০ ধারা বাতিল করার ঘোষণার পর থেকেই থমথমে ছিল গোটা উপত্যকা। জম্মু ও কাশ্মীরকে কড়া নিরাপত্তাবেষ্টনীতে মুড়ে একরকম অবরুদ্ধ অবস্থায় রাখে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।


আরও পড়ুন: পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে অচলাবস্থার কথা স্বীকার করলো কাশ্মীর প্রশাসন


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, লালচক থেকে কয়েকশ মিটার দূরে হরি সিং হাই স্ট্রিট মার্কেটে এই হামলা হয়। ঘটনার পরপরই কাশ্মীর জোন পুলিশ টুইট করে জানায় যে ওই অঞ্চলটি ঘিরে ফেলা হয়েছে এবং সন্ত্রাসীদের খোঁজে উপত্যকার বিভিন্ন জায়গায় জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ এবং সিআরপিএফ চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছে।

পুলিশের তরফ থেকে সংবাদসংস্থা পিটিআই’কে জানানো হয়, ওই এলাকার বাজারের দোকানপাট বন্ধ থাকলেও কয়েকজন বিক্রেতা সেখানে কয়েকটি অস্থায়ী দোকান বসিয়ে প্রয়োজনীয় নানা সামগ্রী বিক্রি করছিলেন।

এর আগে, জম্মু ও কাশ্মীরের অবরুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেই গত ৫ অক্টোবরও কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে একটি গ্রেনেড হামলা চলিয়েছিলো। জেলা কালেক্টরের কার্যালয়ের বাইরে হওয়া ওই হামলায় কমপক্ষে ১৪ জন আহত হন।