• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন করলেন রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীরা

  • প্রকাশিত ০৪:৫৭ বিকেল ডিসেম্বর ২, ২০১৯
nolini-shreeharan
রাজীব গান্ধী হত্যা মামলার আসামি নলিনী শ্রীহরণ। সংগৃহীত

২৮ বছর ধরে কারাভোগ করা নলিনী ও তার স্বামী তাদের মুক্তির দাবিতে অনশন করার পরও কাজ না হওয়ায় এই আবেদন করেন তারা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী হত্যাকাণ্ডের দুই আসামি নলিনী শ্রীহরণ ও তার স্বামী মুরুগান শ্রীহরণ। ইন্ডিয়া টুডে'র একটি খবরে বলা হয় রাজীব গান্ধী হত্যা মামলায় দোষী প্রমাণিত হয়ে গত ২৮ বছর ধরে কারাভোগ করছেন এই দম্পতি।

গত ২৭ নভেম্বর এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অমরেশ্বর প্রতাপ সাহির কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন নলিনী। চিঠিতে মেয়ের সাথে দেখা না করতে না পারার মানসিক চাপ থেকে স্বেচ্ছামৃত্যুর পথ বেছে নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে নলিনী লিখেছেন, "গত ২৬ বছর ধরে জেল থেকে মুক্তির পাওয়ার স্বপ্ন দেখেছি আমি ও মুরুগান। কিন্তু, এখন সে স্বপ্ন ভেঙে গিয়েছে। মুরুগান যে জেলে বন্দি আছে সেখানকার কর্তৃপক্ষ তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। আমি চাইলেও স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে দেয় না। বাধ্য তামিলনাড়ু সরকারের কাছে স্বামীকে অন্য জেলে সরানোর আবেদনও করেছি। কিন্তু, কোনও সুরাহা হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন জানাচ্ছি।"

এপ্রসঙ্গে নলিনীর আইনজীবী জানান, "গত ২৮ বছর ধরে মেয়ের কাছ থেকে দূরে রয়েছে নলিনী ও মুরুগান। বিষয়টি তাদের প্রচণ্ড মানসিক কষ্ট দিচ্ছে। তাই এর আগে বহুবার রাজ্য সরকারের কাছে নিজেদের মুক্তির আবেদন জানিয়েছে তারা। কারণ তারা ইতোমধ্যেই ২৮ বছর কারাভোগ করে ফেলেছেন। কিন্তু, তাতে কোনও কাজ হয়নি।"

পরে অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে স্বামী ও নিজের মুক্তির দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেন নলিনী। তাতেও কাজ না হওয়ায় স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন করলেন তারা।