• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

ক্রিসমাস মার্কেটে মদ্যপ রেকুনের মাতলামি!

  • প্রকাশিত ০৯:৫৮ রাত ডিসেম্বর ৯, ২০১৯
রেকুন
ছবি: ডয়চে ভেলে

ধারণা করা হচ্ছে, মার্কেটে গিয়ে লোকজনের রেখে যাওয়া ওয়াইনের গ্লাসের তলানি পান করেই রেকুনটির ওই অবস্থা হয়

সম্ভবত পথ ভুলেই জার্মানির এরফুর্ট নগরীর ক্রিসমাস মার্কেটে ঢুকে পড়েছিল একটি রেকুন (কিছুটা কুকুরের মতো দেখতে ছোট আকৃতির স্তন্যপায়ী প্রাণী)৷ কিন্তু সেখানে গিয়ে মানুষের ফেলে যাওয়া ওয়াইনের গ্লাসের তলানি পান করে রীতিমতো মাতলামি শুরু করে সে!

এমন তথ্য জানিয়ে জার্মান গণমাধ্যম ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, একপর্যায়ে ঘুমিয়ে পড়লে প্রাণীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে৷ শনিবার  (৭ ডিসেম্বর) জার্মানির মধ্যাঞ্চলের নগরী এরফুর্টে এমন ঘটনা ঘটে৷ 

রেকুনটি বেশখানিকটা মল্টেড ওয়াইন গিলে ফেলে শুরুতে টলতে থাকে, তারপর মাতলামি শুরু করে৷ পথচারীরা তার কাণ্ডকারখানা উপভোগ করছিলেন৷ পরে পুলিশ এসে সেটিকে সরিয়ে নেয়৷

এরফুর্ট সিটি পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, “রেকুনটি নিশ্চয়ই মদপান করেছে৷ যদিও, মদ্যপ কিনা তা নিশ্চিত করতে তার শ্বাসযন্ত্রের পরীক্ষা করানো হয়নি৷”

ধারণা করা হচ্ছে, মার্কেটে গিয়ে লোকজনের রেখে যাওয়া ওয়াইনের গ্লাসের তলানি পান করেই রেকুনটির ওই অবস্থা হয়৷

পথচারীরা রেকুনের মাতলামির ভিডিও করেছেন৷ সেগুলোতে দেখা যায়, সেটি টলমল পায়ে চারদিকে ঘুরে বেড়াচ্ছে৷ এক নারীর জুতা নিয়ে খেলার পর সে একটি ভবনের সামনে বসে ঘুমিয়ে পড়ে৷

দমকল কর্মীরা সেখান থেকে সেটিকে প্রাণীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যায়৷

এর আগে ২০১৮ সালে এরফুর্ট গির্জা থেকে দুইটি মাতাল সজারুকে সরিয়ে নিয়েছিল পুলিশ৷ পরে প্রাণী দু’টিকে স্থানীয় চিড়িয়াখানায় দিয়ে দেওয়া হয়৷