• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৬ সকাল

মিয়ানমারের শীর্ষ চার সেনাকর্মকর্তার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা

  • প্রকাশিত ১১:৩২ সকাল ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
মিয়ানমার, সেনাবাহিনী
মিয়ানমারের শীর্ষ চার সেনা কর্মকর্তার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র এএফপি

এ নিষেধাজ্ঞাটি যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক রোহিঙ্গাদের ওপর মানবাধিকার লঙ্ঘনের কারণে মিয়ানমারকে দেওয়া এ যাবৎ কালের সবচেয়ে কঠোর নিষেধাজ্ঞা

মিয়ানমারের শীর্ষ চার সেনা কর্মকর্তার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবারের (১০ ডিসেম্বর) এ নিষেধাজ্ঞাটি যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক রোহিঙ্গাদের ওপর মানবাধিকার লঙ্ঘনের কারণে দেওয়া এ যাবৎ কালের সবচেয়ে কঠোর নিষেধাজ্ঞা।

এপ্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বক্তব্যে বলা হয়েছে, “মিয়ানমার সেনাবাহিনী সেনাপ্রধান মিন আং লাংয়ের নেতৃত্বে ভয়ংকরভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছেন।”

সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাংকে লক্ষ্য করে দেওয়া এই নিষেধাজ্ঞাটি এমন সময়ে দেওয়া হলো, যখন দেশটির নেত্রী অং সান সু চি রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অভিযোগে গাম্বিয়ার করা মামলা শুনানির প্রথমদিনে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে অবস্থান করছেন। 

সেনাপ্রধান মিন আং লেইন ছাড়াও সেনাবাহিনীর উপ-প্রধান ভাইস সিনিয়র জেনারেল সোয়ে উইন, ৯৯ লাইট ইনফানট্রি ডিভিশনের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল থান ও এবং ৩৩ লাইট ইনফানট্রি ডিভিশনের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অং অং।

এবছর জুলাই মাসেও এই চার সেনা কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে দেশটি। সেসময় এই চার সেনা কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে এক কঠোর বিদ্রোহ দমন অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। এসময় গণধর্ষণ, হত্যা ও ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়াসহ জাতিগত নির্মূল অভিযান থেকে বাঁচতে সাত লাখের অধিক রোহিঙ্গা পালিয়ে প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

এরপর, এবছরের নভেম্বরে রোহিঙ্গাদের গণহত্যা, অত্যাচার ও ধর্ষণের অভিযোগে  মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করে পশ্চিম আফ্রিকার ক্ষুদ্রদেশ গাম্বিয়া।