• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

নাগরিকত্ব আইনের বিরোধীদের উত্তর কোরিয়া যেতে বললেন বিজেপি নেতা

  • প্রকাশিত ০৬:১৮ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
তথাগত রায়
ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজ্যপাল ও ক্ষমতাসীন বিজেপি দলের নেতা তথাগত রায়। সংগৃহীত

তিনি বলেন, একসময় ধর্মের নামেই দেশটি বিভক্ত হয়েছিল

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে চলছে আন্দোলন। এরমধ্যেই নতুন মন্তব্য করে বিতর্ক উস্কে দিয়েছেন দেশটির মেঘালয় রাজ্যের রাজ্যপাল ও ক্ষমতাসীন বিজেপি দলের নেতা তথাগত রায়। আইনটির বিরোধীতাকারীদের দেশ ছেড়ে উত্তর কোরিয়া চলে যেতে বলেছেন তিনি। 

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে এক পোস্টে তথাগত এমন মন্তব্য করেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। 

টুইটে বিজেপির এই নেতা লেখেন, "বর্তমান বিতর্কের পরিবেশে দু’টি বিষয় কখনো ভুলে যাওয়া উচিত নয়। ১. একসময় ধর্মের নামেই দেশটি বিভক্ত হয়েছিল। ২. গণতন্ত্র স্বভাবগতভাবেই বিভাজক। আপনি যদি এমন না চান তাহলে উত্তর কোরিয়ায় চলে যান।”

নাগরিক আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারীরা শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) রাজভবনের প্রবেশ মুখে বিক্ষোভ করে। এসময় উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। বিক্ষোভকারীদের ওপর লাঠিচার্জ করে এবং টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করে পুলিশ। এতে পুলিশসহ বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী আহত হন। 

এদিকে রাজ্যসভায় পাস হওয়া সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন-২০১৯'এর জের ধরে চলমান আন্দোলনের মধ্যে শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) দেশটির উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে ভ্রমণ করতে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডা। 

বার্তাসংস্থা আইএনএসের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ওই অঞ্চলে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধীতা করে আন্দোলন চলছে। বুধবার থেকে এই আইনের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমেছে রাজ্যগুলোর হাজার হাজার বিক্ষোভকারী। এসময় ভাঙচুরসহ পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। 

সম্প্রতি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন-২০১৯ ভারতের রাজ্যসভায় পাস হয়। এই আইনে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে নির্যাতনের শিকার হতে ভারতে আশ্রয় নেওয়া সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়। তবে সেখানে মুসলিমদের বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। এই আইন ভারতের সাম্প্রদায়িক ভাবমূর্তির বিপক্ষে যায় বলে সমালোচনা করেছেন অনেকেই। আইনের সংশোধনীতে "ধর্মীয় বৈষম্য" করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন অনেকে।