• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:২৫ দুপুর

পিটিয়ে মারার দু’দিন পর ভারতীয় নাগরিকের লাশ ফেরত নিলো বিএসএফ

  • প্রকাশিত ১২:৪০ দুপুর ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯
বিএসএফ
সীমান্তে টহলরত বিএসএফ সদস্যরা। ঢাকা ট্রিবিউন

অনুপ্রবেশকারী সন্দেহে সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারী মানসিক ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তিকে গত শনিবার পিটিয়ে হত্যা করে বিএসএফ সদস্যরা

পিটিয়ে মারার দু'দিন পর অবশেষে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ভারতীয়র লাশ ফেরত নিয়ে গেছে বিএসএফ। রবিবার (২২ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯ টায় ওই ভারতীয় নাগরিকের লাশ বিএসএফ ফেরত নিয়ে যায় বলে নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর ৪২ বিজিবি’র কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল গাজী নাহিদুজ্জামান।

৪২ বিজিবি’র কমান্ডিং অফিসার লে কর্নেল গাজী নাহিদুজ্জামান বলেন, "বিএসএফ’র অবিলম্বে লাশ ফেরত নিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও গত দু’দিন লাশটি একই স্থানে পড়ে ছিল। এব্যাপারে বিজিবি বারবার বিএসএফকে মনে করিয়ে দিলেও কোনো কাজ না হওয়ায় অবশেষে বিজিবি দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মোঃ সোহরাব হোসেন ভুইয়া নিজ উদ্যোগে কিষাণগঞ্জ সেক্টরের স্টাফ অফিসার কমান্ডান্ট গরাজের সাথে ফোন করে লাশটি দ্রুত সরানোর অনুরোধ করেন। এরপর বিএসএফ রোববার রাত সাড়ে ৯টায় লাশটি ফেরত নিয়ে যায়।"

দিনাজপুর ৪২ বিজিবি অধিনায়ক লে.কর্নেল নাহিদুজ্জামান বলেন," লাশটি দু’দিন পড়ে থাকায় সংশ্লিষ্ট সীমান্তে একটা অস্বস্তি বিরাজ করছিল। দেরিতে হলেও ১৪৬ বিএসএফ’র লাশটি নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।"

এর আগে গত শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে জেলার হরিপুর সীমান্তের দিনাজপুর ৪২ বিজিবি’র আওতাভুক্ত মিনাপুর বিওপি এলাকা থেকে ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে হরিপুর থানা পুলিশ। বিএসএফ’র বরাত দিয়ে বিজিবি জানিয়েছিল যে ওই ব্যক্তি একজন মানসিক ভারসাম্যহীম ভারতীয় নাগরিক। তিনি সীমান্ত এলাকায় একটি গাছতলায় থাকতেন। অনুপ্রবেশকারী সন্দেহে তাকে পিটিয়ে মারে বিএসএফ।