• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১১ দুপুর

ট্রাম্প: ইরান পিছু হটতে শুরু করেছে

  • প্রকাশিত ১১:৫২ সকাল জানুয়ারী ৯, ২০২০
ট্রাম্প
বুধবার (৮ জানুয়ারি) হোয়াইট হাউজে ভাষণ দেন মার্কি ন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এএফপি

বুধবার (৮ জানুয়ারি) হোয়াইট হাউজে দেওয়া ভাষণে ট্রাম্প আরও বলেন, ‘ইরানের সুমতি হয়েছে, যা সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষ ও সমগ্র বিশ্বের জন্যই একটি সুখবর’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, পরিস্থিতি দেখে মনেহচ্ছে ইরান পিছু হটতে শুরু করেছে। 

এর আগে, বুধবার (৮ জানুয়ারি) ইরানের স্থানীয় সময় রাত দেড়টার দিকে (বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৪টা) ইরাকের দুই মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৮০ জনেরও বেশি মার্কিন সেনা নিহত হয়েছে বলে দাবি করে ইরান। যদিও ট্রাম্পের পক্ষ থেকে ইরানের হামলায় কোনও মার্কিন সেনা নিহত হয়নি বলে দাবি করা হয়।

বুধবার স্থানীয় সময় রাতে হোয়াইট হাউজে দেওয়া ভাষণে ইরানের ওই হামলার প্রতিশোধ নেওয়ার কোনও হুমকি না দিয়ে ট্রাম্প বলেন, “আমাদের সব সেনা নিরাপদে আছে। তবে আমাদের সামরিকঘাঁটির সামান্য ক্ষতি হয়েছে। মার্কিন সেনারা যেকোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত।” 

ট্রাম্প আরও বলেন, “ইরানের সুমতি হয়েছে, যা সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষ ও সমগ্র পৃথিবীর জন্যই একটি সুখবর।”

একইসাথে, ভাষণে ইরানের জন্য বলবৎ যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর নীতিতে কোনও পরিবর্তন আসবে বলেও ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। যদিও, নতুন বছরের শুরুতেই যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যকার সম্পর্কে ব্যাপক অবনতির আশংকা দেখা দিয়েছিলো।

ইরানের মিসাইল হামলার বিষয়টি উল্লেখ করে ট্রাম্প আরও বলেন, “যুক্তরাষ্ট্র খুব শীঘ্রই ইরানের শাস্তিস্বরূপ তাদের ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করবে। এছাড়া  অবরোধের আরও নতুন নতুন ক্ষেত্রও খুঁজে বের করা হবে। এসব শক্তিশালী নিষেধাজ্ঞা ততদিন চলবে যতদিন ইরান তাদের আচরণ না বদলাবে।”

তিনি বলেন, “আমাদের অসাধারণ সেনাবাহিনী ও অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি রয়েছে। তারমানে এই নয় যে আমাদের সেগুলোকে ব্যবহার করতে হবে। আসলে আমরা চাইও না সেগুলো ব্যবহার করতে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা ও অর্থনীতি দুই শক্তিই সারাবিশ্বে সর্বোৎকৃষ্ট প্রতিরোধ গড়তে সক্ষম।”