• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৯ রাত

মসজিদে হলো হিন্দু বিয়ে

  • প্রকাশিত ১০:৪৬ সকাল জানুয়ারী ২০, ২০২০
বিয়ে-কেরালা-সিএএ
রবিবার (১৯ জানুয়ারি) কেরালার চেরুভাল্লি মসজিদ সাক্ষী হয়ে থাকলো ঐতিহাসিক এ বিয়ের সংগৃহীত

এছাড়া নবদম্পতিকে ১০টি স্বর্ণমুদ্রা ও  দু'লক্ষ টাকা উপহারও দিয়েছে মসজিদ কমিটি

ভারত যখন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) নিয়ে উত্তাল, সেই সময় বিধানসভায় সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাস করে চমকে দিয়েছে কেরালা।এর একসপ্তাহের মধ্যেই কেরালার একটি মসজিদে এক হিন্দু দম্পতির বিয়ে দিয়ে আবারও চমক সৃষ্টি করেছে কেরালা।

রবিবার (১৯ জানুয়ারি) কেরালার চেরুভাল্লি নামক ওই মসজিদে বিয়ের আয়োজন করা হয় বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এইসময়। হিন্দু-মুসলিম নির্বিশেষে প্রায় হাজার খানেক আমন্ত্রিত অতিথির আশীর্বাদে অস্থায়ী এক বিয়েবাড়ি হয়ে ওঠে মসজিদ প্রাঙ্গণ।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, দু'বছর আগে মারা যান নববধূ অঞ্জুর বাবা। এরপর থেকেই তিন সন্তানকে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে কোনও ক্রমে দিন দিন পার করছিলেন অঞ্জুর মা, কিন্তু মেয়ের বিয়েতে দেওয়ার মতো টাকার ব্যবস্থা করতে পারছিলেন না। এসময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন প্রতিবেশী নিজামউদ্দিন আলুমুত্তিল। তিনিই ওই নারীকে জামাত কমিটিতে যাওয়ার পরামর্শ দেন। মনে দ্বিধা নিয়েই মসজিদ কমিটির দ্বারস্থ হন বিন্দু। কিন্তু সেখানে মেলে অভাবনীয় প্রতিক্রিয়া। মসজিদ কমিটির একজন সদস্য বিয়ের খরচের দায়িত্ব নেন। কিন্তু অতিথিদের খালি মুখে ফেরানো যায় না, তাই শুরু হয় প্রীতিভোজের ব্যবস্থা। শুক্রবারে জুম্মার নামাজে যোগ দিতে আসা মুসলিমদের জানানো হয় বিয়ের বিষয়টি। সেসময় আর্থিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন অনেকেই।

ফলে কেরালার চেরুভাল্লি মসজিদ চত্বর সাক্ষী হয়ে থাকলো ঐতিহাসিক এই বিয়ের। সোনালি কাজের বেনারসি শাড়ি পরে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন অঞ্জু-শরত দম্পতি। শুধু তাই নয়, নববধূকে ১০টি স্বর্ণমুদ্রা এবং নব দম্পতিকে দু'লক্ষ টাকাও উপহার দিয়েছে মসজিদ কমিটি।

বিয়ের একটি ছবি পোস্ট করেছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। সেখানে তিনি বলেন, “কেরালা বরাবর ধর্মীয় সম্প্রীতির এমন নজিরই দেখিয়েছে। কেরালায় আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম, ঐক্যবদ্ধই থাকব।”