• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৩ দুপুর

এবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব পাস

  • প্রকাশিত ০৮:৪২ রাত জানুয়ারী ২৭, ২০২০
সিএএ
রয়টার্স

দেশটির কেরালা, পাঞ্জাব ও রাজস্থানের পর এবার পশ্চিমবঙ্গেও পাস হলো সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) কণ্ঠভোটে এই প্রস্তাব পাস হয় 

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহার ও জাতীয় জনসংখ্যাপঞ্জী (এনপিআর), জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর (এনআরসি) মতো প্রক্রিয়া চালু না করার দাবি তুলে প্রস্তাব পাস করেছে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা। 

দেশটির কেরালা, পাঞ্জাব ও রাজস্থানের পর এবার ওই রাজ্যেও পাস হলো সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব।

আনন্দবাজার জানায়, সোমবার (২৭ জানুয়ারি)পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের পরিষদীয়মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিধানসভায় প্রস্তাবটি পেস করেন। বাম ও কংগ্রেস সদস্যরা এই প্রস্তাবে সংশোধনী আনার পক্ষে মতামত পেশ করেন। অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গরাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সংশোধনী না আনার জন্য দু’দলের সদস্যদের কাছে আর্জি জানানো হয়। প্রথম থেকেই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে আসছে বিজেপি। শেষমেশ কণ্ঠভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়ে যায়।

প্রস্তাবে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন যে নাগরিকত্ব আইনের দ্বারা কোনও নাগরিকের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হবে না। কিন্তু এই আইনে তার কোনও উল্লেখ নেই। যা নাগরিকদের মধ্যে একটা বিভ্রান্তি তৈরি করছে। তাই রাজ্যে সরকারের মাধ্যমে কেন্দ্র সরকারের কাছে দাবি জানানো হচ্ছে যে, সিএএ বাতিল ও  এনপিআর, এনআরসি প্রত্যাহারের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে হবে। 

প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে, সিএএ-র সাহায্যে কেন্দ্রের শাসকদল ধর্মের নামে দেশের মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছে। মানবাধিকারকে ধ্বংস করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। ফলে পশ্চিমবঙ্গসহ দেশের প্রতিটি রাজ্যে চরম অস্থিরতা তৈরি হয়েছে।

গত ৬ সেপ্টেম্বর ভারতে জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস করেছিলো পশ্চিমবঙ্গরাজ্য বিধানসভা। 

সেই প্রস্তাবে বলা হয়, এনআরসি-র তৈরির নামে বৈধ ভারতীয় নাগরিকদের হয়রানি করা হচ্ছে। এরাজ্যে কোনভাবেই এনআরসি চালু করা যাবে না। পরবর্তীতে, সেই প্রস্তাবও গৃহীত হয়েছিলো।