• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৪ রাত

রোহিঙ্গাদের পক্ষে আন্তর্জাতিক আদালতে আইনজীবী মনোনয়ন করলো মালদ্বীপ

  • প্রকাশিত ০৪:১২ বিকেল ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০
রোহিঙ্গা
কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প সৈয়দ জাকির হোসেন/ঢাকা ট্রিবিউন

নির্যাতিত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সুবিচার নিশ্চিত করতে প্রখ্যাত মানবাধিকার আইনজীবী আমাল ক্লুনিকে নিয়োগ দিয়েছে মালদ্বীপ

জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে নির্যাতিত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সুবিচার নিশ্চিত করতে প্রখ্যাত মানবাধিকার আইনজীবী আমাল ক্লুনিকে মনোনয়ন করেছে মালদ্বীপ। 

এর আগে, ২০১৫ সালে ক্লুনি অত্যন্ত সফলভাবে মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের পক্ষে লড়ে তার ১৩ বছরের কারাদণ্ডের আদেশকে অবৈধ প্রমাণ করতে সমর্থ হয়েছিলেন। নাশিদের ওই কারাদণ্ডকে জাতিসংঘের পক্ষ থেকেও অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছিলো।

মালদ্বীপ সরকারের পক্ষ থেকে ক্লুনির বরাত দিয়ে জানানো হয়, “মিয়ানমারে সংঘটিত গণহত্যায় জবাবদিহিতার সময় এমনিতেই পার হয়ে গিয়েছে। আমি এই অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি নিয়ে কাজ করতে সামনের দিকে তাকিয়ে আছি যেন নির্যাতিত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য বিচারিক সহায়তা নিশ্চিত করতে পারি।”

এদিকে, মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ শহীদ জানিয়ছেন, নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের সমর্থনে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে (আইসিজে) হস্তক্ষেপ করার বিষয়ে লিখিত ঘোষণা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার দেশ। মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪৩তম অধিবেশনে বক্তব্য রাখার সময় এই তথ্য জানান তিনি।

তিনি বলেন, “মালদ্বীপ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত গণহত্যার ঘটনায় জবাবদিহিতা নিশ্চিতের চলমান প্রচেষ্টাকে সমর্থন জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।গতবছর মক্কায় অনুষ্ঠিত অর্গানাইজেশন অব কো-অপারেশন (ওআইসি) সম্মেলনে নেওয়া সিদ্ধান্তের ধারাবাহিকতায়ই আমাদের এই অভিপ্রায়।”