• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৫ রাত

দেশের ‘শান্তি’ কামনায় মন্দিরে পূজা দিলেন মমতা!

  • প্রকাশিত ০২:৪৪ দুপুর ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
মমতা
কলকাতায় রথযাত্রা উদযাপনে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি: সংগৃহীত

পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে পূজা দিয়ে তিনি বলেন, ‘যা ঘটছে তাতে আমার মন কাঁদছে। মা-মাটি-মানুষের সব পরিবারের শান্তি কামনা করে পুজো দিয়েছি’

ভারতের উড়িষ্যার পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে পূজা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক প্রতিবেদনে মমতার সেই মঙ্গলকামনার খবর জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পূজা দিয়ে তিনি দিল্লি-পরিস্থিতির দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, “যা ঘটছে তাতে আমার মন কাঁদছে। সকলের মঙ্গলের জন্য পুজো দিলাম। দেশের মানুষের জন্য শান্তি প্রার্থনা করেছি। মা-মাটি-মানুষের সব পরিবারের শান্তি কামনা করে পুজো দিয়েছি।” 

দিল্লির ঘটনায় উদ্বেগ জানাতে বুধবার ফেসবুকে একটি কবিতা লেখেন তিনি। বাংলায় “নরক” নামে সেই কবিতার ইংরেজি ও হিন্দি অনুবাদ রয়েছে। 

সেখানে মমতা লিখেছেন, “হোলির আগেই রক্তের হোলি। মনুষ্যত্ব বড় করুণ।”

পুরীর মন্দিরে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটিয়েছেন তিনি। মমতা যখন মন্দিরে পৌঁছান তখন প্রবেশদ্বার থেকে তাকে স্বাগত জানিয়ে ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেইসময় মন্দিরের চূড়া থেকে ধ্বজা নামানো চলছিল। যিনি ধ্বজা নামাচ্ছিলেন পুজো দিতে আসা মুখ্যমন্ত্রীকে দেখে তিনি ওপর থেকে হাত নেড়ে অপেক্ষা করতে বলেন। পরে ধ্বজা নামিয়ে সেটি তার মাথায় ছুঁইয়ে গলায় জড়িয়ে দেওয়া হয়।