• রবিবার, জুলাই ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০৫ রাত

সিএএ: ভারতের সুপ্রিম কোর্টকে সহায়তা করতে চায় জাতিসংঘ

  • প্রকাশিত ১০:০৬ রাত মার্চ ৪, ২০২০
সিএএ
সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দিল্লির জাফরাবাদে বিক্ষোভ চলাকালীন বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। সংগৃহীত

ভারত অবশ্য দাবি করছে নাগরিকত্ব আইন পুরোপুরি তাদের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’ এবং জাতিসংঘের ওই সংস্থার কোনও এখতিয়ার নেই ওই আইনি প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করার

ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে সেদেশের সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা একটি মামলায় আদালতকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে চেয়ে ভারতকে চরম বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন।

ভারত অবশ্য দাবি করছে নাগরিকত্ব আইন পুরোপুরি তাদের “অভ্যন্তরীণ বিষয়” এবং জাতিসংঘের ওই সংস্থার কোনও এখতিয়ার নেই ওই আইনি প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করার। এক প্রতিবেদনে এখবর জানিয়েছে বিবিসি।

ভারতেই একাধিক বিরোধী রাজনীতিবিদ মনে করছেন, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ভারতের ভাবমূর্তি যে কতটা তলানিতে ঠেকেছে কমিশনের এই পদক্ষেপ তারই প্রমাণ। দেশটির আইন বিশেষজ্ঞরাও অনেকেই বলছেন জাতিসংঘের ওই সংস্থার চাওয়াতে কোনও আইনগত বাধা নেই।

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে একটি রিট পিটিশন করেছিলেন সাবেক কূটনীতিবিদ ও ঢাকায় ভারতের প্রাক্তন হাইকমিশনার দেব মুখার্জি।

তবে, “দেব মুখার্জি ও অন্যান্যরা বনাম ইউনিয়ন অব ইন্ডিয়া”-র সেই মামলায় “অ্যামিকাস কিউরি” হিসেবে হস্তক্ষেপ করতে চেয়ে পরিস্থিতিতে নাটকীয় মোড় এনে দিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার হাইকমিশনারের কার্যালয়।

বর্তমান হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলে, যিনি আগে চিলির প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তার কার্যালয়ের পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্তের কথা জেনিভায় ভারতীয় দূতাবাসকে ইতোমধ্যে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে।

জাতিসংঘের ওই সংস্থার সিদ্ধান্ত জানার সঙ্গে সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতি দিয়ে দাবি করে, নাগরিকত্ব আইন সম্পূর্ণত ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। মুখপাত্র রবীশ কুমারের স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ইউএনএইচআরসি-র কোনও এক্তিয়ার বা “লোকাস স্ট্যান্ডাই”-ই নেই এবিষয়ে নাক গলানোর।

হায়দ্রাবাদের নালসার ইউনিভার্সিটি অব ল-র উপাচার্য ড: ফায়জান মুস্তাফা অবশ্য এই দাবির সঙ্গে মোটেই একমত নন। তার কথায়, "একটা মানবাধিকারের প্রশ্নে জাতিসংঘের ওই সংস্থার লোকাস স্ট্যান্ডাই কী, এটা বলাটাই আমার মতে চূড়ান্ত হাস্যকর।"

তিনি বলেন, "মনে রাখতে হবে এটা একটা জনস্বার্থ মামলা, এখানে কখনও আবেদনকারীকে জিজ্ঞেস করা হয় না তোমার লোকাস স্ট্যান্ডাই কী? জনস্বার্থ মামলা ব্যাপারটা চালু হওয়ার আগে আদালত পিটিশনার-কে জিজ্ঞেস করতে পারত তোমার কোন অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে? কিন্তু জনস্বার্থ মামলায় এখন একমাত্র প্রশ্ন হল, কার অধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে?।”

সংবিধান বিশেষজ্ঞ দর্শনা মিত্র জানান, জাতিসংঘের মানবাধিকার হাইকমিশনারের কার্যালয় যে ইন্টারভেনশন অ্যাপ্লিকেশন বা হস্তক্ষেপের আবেদন করেছে, সেটা করার আইনগত অধিকার তাদের অবশ্যই আছে।

তিনি বলেন, "অ্যামিকাস কিউরি কথাটার আক্ষরিক অর্থ হল আদালতের বন্ধু। এখন কোর্ট চাইলে এই অ্যামিকাস কিউরি হিসেবে যে কোনও লোক বা সংস্থাকেই নিয়োগ করা যেতে পারে। হ্যাঁ এটা ঠিকই যে সচরাচর জাতিসংঘ বা আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম থেকে কাউকে এনে অ্যামিকাস কিউরি হিসেবে নিয়োগ করার নজির বিশেষ একটা নেই। কিন্তু তাই বলে এটা করার ক্ষেত্রে কোনও বাধা-ও নেই। অনায়াসে তারা এই ধরনের কোনও আবেদন ভারতের সুপ্রিম কোর্টে করতে পারেন, সেখানে আইনগতভাবে আপত্তি তোলার কোনও সুযোগ নেই।"

তিনি আরও বলেন, "তাদের মূল কাজ হল আদালত যেভাবে বলবেন, সেভাবে তারা ওই মামলা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে হয়তো কোনও প্রতিবেদন বা ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং রিপোর্ট দেবেন, তথ্য জোগাবেন।"

53
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail